বিপিসিটিএমএ -এর দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে তুহিন সভাপতি ও রাসেল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত

14

লিখন রাজ,নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পেপার কোন ও পেপার টিউব ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ পেপার কোন এন্ড টিউব ম্যানুফ্যাকচারার্স এসোসিয়েশন (বিপিসিটিএমএ) এর দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে পরিচালক পদে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।কার্যনির্বাহী কমিটির ১৩ জন পরিচালক পদের বিপরীতে ১৮ জন প্রার্থী উক্ত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।শনিবার (০৯ অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ৪৮-৫০, খন্দকার টাওয়ার, কাপ্তান বাজার, ঢাকায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।দ্বিতীয় দফায় রবিবার (১০ অক্টোবর) দুপুর ১২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত কর্মকর্তা নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র ক্রয় ও জমা দেওয়ার সময় নির্ধারিত ছিলো। এই সময় ৬টি পদের বিপরীতে ৬ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেন। একই পদে একাধিক মনোনয়ন পত্র জমা না পড়ায় প্রাথমিক ভাবে নির্বাচিত প্রার্থীর তালিকা ঘোষণা করা হয়।সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন আব্দুল হালিম সরকার তুহিন ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন মিজানুর রশিদ রাসেল।
এছাড়া সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন আকবর আলী, সহ-সভাপতি পদে মোশারফ হোসেন সানী ও মোঃ মহসিন মোল্লা, সহ-সভাপতি (অর্থ) পদে মোঃ জাহাঙ্গীর আলম।পরিচালক পদে বিজয়ীরা হলেন হাজ্বী ফরিদ মিয়া, আবুল কালাম আজাদ, মোঃ কামাল হোসেন, মোঃ মমিনুর, আনিসুল ইসলাম পলাশ, ফয়েজ আহমেদ ও হাসান আল মামুন।এছাড়া বিপিসিটিএমএ -এর নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন খন্দকার গ্রুপের চেয়ারম্যান ও এফবিসিসিআই এর সাবেক পরিচালক খন্দকার রুহুল আমিন। নির্বাচন বোর্ডের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন সারোয়ার ওয়াদুদ ও আবুল বাসার।নির্বাচন আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এফবিসিসিআই -এর সহ-সভাপতি আমিন হেলালী। নির্বাচন আপিল বোর্ডের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ফরিদ আহমেদ ও শহীদ সারোয়ার।বিজয়ী হওয়ার পর আব্দুল হালিম সরকার তুহিন বলেন, ভোটাররা যোগ্য প্রার্থীদেরই নির্বাচিত করেছেন। অর্পিত দায়িত্ব পালন করতে আমরা একজোট হয়ে কাজ করতে চাই।মিজানুর রশিদ রাসেল বলেন, সাধারণ ভোটাররা আমাদের ভোট দিয়েছেন । এ জন্য তাদের ধন্যবাদ জানাই। এসোসিয়েশনে গণতান্ত্রিক পরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে আমরা কাজ করবো।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •