তাহিরপুর গবিন্দশ্রী রাস্তার বেহাল দশা, কুমিরের খালের উপর সেতু ঝুঁকিপূর্ণ

4

রোকন তাহিরপুর সুনামগঞ্জঃসুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের পোষ্ট অফিস থেকে ভাটিতাহিরপুর সড়কে ভাঙ্গাচুরা ও খানাখন্দে বেহাল অবস্থা বিরাজ করছে। র্দীঘদিন ধরে সড়কটিতে সংস্কার কাজ না করায় ১৫টি গ্রামের ৫সহস্রাধিক মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উপজেলা সদরে ও বাজারে চলাচল করছে। একেই সড়কে কুমিরখালের উপর নির্মিত ছোট সেতুও খুবেই ঝুকিঁপূর্ন।যেকোন সময় ভেঙ্গে পড়ে বড় ধরনের দূর্ঘটনার পাশাপাশি সড়ক পথে চলাচল একবারেই বন্ধ হয়ে যেতে পারে। জনদূভোর্গ লাগবে সেতু ও সড়কটি দ্রুত সংস্কারে প্রয়োজনীয় প্রদক্ষেপ গ্রহনের দাবী জানিয়েছে উপজেলার সচেতন মহল।সরজমিনে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানাযায়,উপজেলার শনির হাওর সংলগ্ন পোষ্ট অফিসের সামনে থেকে ভাটিতাহিরপুর পর্যন্ত এক কিলোমিটারে অধিক সড়কটি খুবেই গুরুত্বপূর্ন। ভাটি তাহিরপুর গ্রামে রয়েছে উপজেলার একমাত্র তাহিরপুর সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়,একটি মডেল স্কুল,তহশিল অফিস,স্বাধীনতা যুদ্ধের স্মৃতি বিজরিতও বীর মুক্তিযুদ্ধার সম্মার্থে স্মৃতিফলক,কমিউনিটি ক্লিনিক ও পথেই রয়েছে সনাতন হিন্দু সম্প্রায়ের কালী মন্দির। যেখানে প্রতিদিনেই হাজার হাজার মানুষের যাতায়াত করছে। আর সারা বছরেই ভাটিতাহিরপুর,ঠাকুরহাটি,রতনশ্রী,শাহগঞ্জ ও দক্ষিন শ্রীপুর ইউনিয়নে ১০টি গ্রামের স্কুল,কলেজের শিক্ষার্থী,সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্টানের কর্মকর্তা,ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন বয়সের নারী,পুরুষ ও পর্যটকরা এই সড়কটি উপর নির্ভির করে।
এছাড়াও শুষ্কমৌসুমে এই সড়ক দিয়েই উপজেলা সদরের বাজার থেকে মটরসাইকেলে করে যাত্রী নিয়ে দক্ষিনশ্রীপুর ইউনিয়নের সোলাইমানপুর বাজার হয়ে মধ্যনগড় থানা(সম্প্রতি উপজেলা ঘোষনা)দিয়ে ধর্মপাশা উপজেলা,নেত্রকোনা জেলা দিয়ে রাজধানী ঢাকা চলাচল করে। গুরুত্বপূর্ন এই সড়কটি কালী বাড়ি সংলগ্ন স্থানে ভাঙ্গন দেখা দিলেও সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ মেরামতের উদ্যোগ না নেওয়ায় প্রায়ই দূঘনটার শিকার হচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ মাহবুব চৌধুরী বলেন,র্দীঘ দিন ধরে মেরামত না করায় সড়কে বড় বড় গর্ত ও ভাঙ্গাচুরা থাকায় জরুরী প্রয়োজনে কোন ধরনের যানবাহন নিয়ে চলাচল করা যায় না। এই সড়কেরই কুমিরখালের উপর ৫০বছরের অধিক সময় পূর্বে নির্মিত ছোট সেতুটির একাধিক স্থানে ফাটল দেখা দিয়ে। সেতুর উত্তর দিকের সংযোগ মাটি ঠিকিয়ে রাখতে বাঁেশর বেড়া দেওয়া হয়েছে। গুরুত্বপূর্ন এই সড়কটি মেরামত করার জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষকে দ্রূত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য দাবী জানান তিনি।
ভাটি তাহিরপুর গ্রামের বাসিন্দা সামায়ুন কবির জানান,উপজেলা সদরে আসার বিকল্প সড়কের ব্যবস্থা না থাকায় ভাঙ্গাচুরা আর খানাখন্দের মধ্যে দিয়ে মটরসাইকেল,রিক্সা,টমটমসহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে প্রতিদিনেই দূঘটনার শিকার হেেয়ছে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী সহ অনেকেই। তাই আমাদের চলাচলের সুবিধার্থে সড়কের মেরামত করা খুবেই প্রয়োজন। তাহিরপুর উপজেলা প্রকৌশলী ইকবাল কবীর বলেন,গুরুত্বপূর্ন সড়কটির ১৭২০ মিটার রক্ষণাবেক্ষণ ও মেরামতের(জিওবি মেন্টেন্যাজ)জন্য এই অর্থ বছরে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। এখন অনুমোদন হয়নি। হলেই কাজ শুরু করা হবে।তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রায়হান কবীর বলেন,উপজেলার গুরুত্বপ‚র্ণ এসড়কটি দ্রুতই মেরামত করতে চেষ্টা অব্যহাত রয়েছে।
তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল বলেন,উপজেলার গুরুত্বপ‚র্ণ সড়কটিতে জনদুর্ভোগ লাঘবে খুব শ্রীঘ্রই ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •