৮ নং পাঙ্গাসী ইউনিয়নবাসীকে হাসিনুরের ঈদ শুভেচ্ছা

মোঃ শাহাদত হোসেন -সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ঃ
পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে সকল ধর্মপ্রাণ মুসলমান ভাইবোনদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক। প্রতিবছর ধর্মপ্রাণ মুসলমানগন দুটি পবিত্র ঈদ উদযাপন করে থাকেন, একটি রমজানের শেষে ঈদুল ফিতর ও অন্যটি হলো ঈদুল আযহা। ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি। পবিত্র ঈদুল আজহা অন্যতম হিসেবে উদযাপন করা হয়। ধনী-গরিবের নেই কোন ভেদাভেদ। সকলেই একত্র হয়ে এক কাতারে দাঁড়িয়ে ঈদের জামায়াতের সহিত নামাজ আদায় করা হয়। বর্তমান মহামারী করোনা ভাইরাস থেকে আল্লাহ পাক সবাইকে যেন হেফাজত করেন। মুসলমানদের জীবনে এক শান্তি ও আনন্দের বার্তা নিয়ে আসুক ঈদুল আজহা। ঈদুল আজহার উৎসব মুসলমানদের ভাতৃত্ববোধে উদ্বুদ্ধ করুক। মুসলমানদের ঘরে ঘরে ফিরে আসুক ঈদুল আজহার আনন্দঘন মুহূর্ত। মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সকলকে বাংলাদেশ সরকার ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা(who) কর্তৃক দেয়া স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলারও অনুরোধ করেন রামেশ্বরগাঁতীর কৃতি সন্তান ৮ নং পাঙ্গাসী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী,গরীবের বন্ধু এস,এম সালাউদ্দিন হাসিনুর। তিনি জানান,দেশের বিদ্যমান এই ক্রান্তি-লগ্নে সব ভেদাভেদ ভুলে,ধনী গরীব একসাথে কাঁধে কাঁধ রেখে সবাইকে ঈদের আনন্দ নিজেদের ভাগ করে নিতে হবে। তাই ঈদুল আজহার এ ত্যাগের শিক্ষা থেকে আমাদের অঙ্গীকার হোক সব হিংসা, বিদ্বেষ ও হানাহানি থেকে মুক্ত হয়ে ন্যায়, সাম্য, ঐক্য, ভ্রাতৃত্ব, দয়া, সহানুভূতি, মানবতা ও মহামিলনের এক ঐক্যবদ্ধ ও ভালোবাসা। তাই পবিত্র ঈদের দিনে জন্মভুমি রায়গঞ্জের ৮ নং পাঙ্গাসী ইউনিয়নের আপামর জনসাধারণ সহ রায়গঞ্জ উপজেলাবাসী তথা দেশ-বিদেশের প্রতিটি ঘরে ঘরে প্রবাহিত হোক শান্তির অমিয় ধারা। মহান আল্লাহ যেন ঈদুল আজহার উছিলায় প্রাণঘাতী করোনা সহ সকল প্রকার বালা মুসিবত থেকে সবাইকে হেফাজত করেন। পবিত্র ঈদের দিনে আমি এই কামনা করি। পরিশেষে সবাইকে তিনি আবারও জানান, ঈদের শুভেচ্ছা ”ঈদ মোবারক”।