কাজিপুরে এক সঙ্গে তিন কন্যা সন্তানের জন্ম

20

মোঃ শাহাদত হোসেন -সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

সিরাজগঞ্জের কাজীপুরে জুলেখা খাতুন নামের এক মা এক সঙ্গে তিন কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। তিনি উপজেলার সোনামুখী ইউনিয়নের রৌহাবাড়ি গোপালপুর গ্রামের জহুরুল ইসলামের স্ত্রী। গত বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বগুড়ার ধুনটেরএকটি ডায়াগনস্টিকে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে তিন শিশুর জন্ম দেন ওই মা। শিশু তিনটির নাম রাখা হয়েছে আয়েশা, ফাতেমা ও মরিয়ম। বর্তমানে শিশু তিনটি সুস্থ থাকলেও মা অসুস্থই রয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ২ সেপ্টেম্বর বিকেলে প্রসব ব্যথা অনুভূত হলে স্বজনরা জুলেখা খাতুনকে পার্শবর্তী বগুড়ার ধুনট উপজেলার একটি ডায়াগনস্টিকে নিয়ে যান। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সিজারিয়ান অপারেশন করান। এতে জন্ম নেয় তিন কন্যা শিশু। এরপর গত মঙ্গলবার ওই মা আরও অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে বগুড়ার শজিমেক এ চিকিৎসার জন্য নেয়া হয়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা নিরীক্ষা করে জানান তার হার্টের সমস্যা হয়েছে। তিন নবজাতক নিয়ে ওই দম্পতি বর্তমানে উপজেলার পরানপুরে নবজাতকদের নানার বাড়িতে অবস্থান করছেন।

নবহাজতকদের বাবা জহুরুল ইসলাম বলেন, আমরা গরীব মানুষ। ভ্যান চালিয়ে মা-বাবা আর স্ত্রীকে নিয়ে সংসার চালাতাম। এরই মধ্যে এক সাথে তিনটি কন্যা সন্তানের জন্ম হলো। পরিবারের খাবার যোগানই কঠিন। এর মধ্যে আবার স্ত্রীর চিকিৎসা খরচ, নিজেদের খাওয়া-দাওয়ার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে সন্তানদের বাড়তি খাবার। সব মিলিয়ে খুবই দুশ্চিন্তায় আছি।

নবজাতকের মা জুলখা খাতুন বলেন, আমি এখনও সুস্থ হই নাই। বুকের দুধে তিন সন্তানের খাবার সংকুলান হচ্ছে না।ডাক্তারের পরামর্শ মতে বাড়তি খাবার দেয়া হচ্ছে। সরকারী ভাবে কোন সহযোগিতা পেলে একটু স্বস্তি পেতাম।কাজীপুর উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা চিত্রা রানী সাহা জানান, এক সঙ্গে তিন সন্তান। এটি সৃষ্টি কর্তার দান। আমাদের কিছুই করার নেই। সম্প্রতি ভিজিডি’র কাজ শেষ হয়েছে। পরবর্তীতে তা করে দেয়া যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে অফিসে যোগাযোগ করতে হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •