নওগাঁয় মানবপাচারের মামলায় গ্রেপ্তার -২ প্রবাসী উদ্ধার

0

আব্দুল মজিদ মল্লিক নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি : নওগাঁ জেলা পুলিশের তৎপরতায় ২৪ ঘন্টার মধ্যে লিবিয়ায় জিম্মি দশা থেকে প্রবাসী দীপু হোসেনকে উদ্ধার ও এর সাথে জড়িত থাকার মামলায় ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে পুলিশ লাইনস ড্রিল সেডে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম এ তথ্য জানান। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, কুমিল্লা জেলার চান্দিনা থানার আটচাইল গ্রামের মৃত হিরোনের ছেলে নাভিদ হাসান ও লেবাস প্রধানিয়া গ্রামের মৃত আবু তাহেরের ছেলে কামাল হোসেন। পুলিশ সুপার জানান, নওগাঁ সদর উপজেলা সাহাপুর গ্রামের মৃত মোজাম্মেলের ছেলে দীপু হোসেন প্রায় ৮ বছর থেকে লিবিয়ায় শ্রমিক হিসাবে কর্মরত। উন্নত জীবন যাপনের জন্য লিবিয়া হতে ইটালী যাওয়ার জন্য চেষ্টা করাকালীন সময়ে একটি সংঘবদ্ধ মানব পাচারের খপ্পরে পড়েন। গত ১৪ আগষ্ট মানব চক্রের মুল হোতা লিবিয়া প্রবাসী ইয়াছিন ও কামাল হোসেনসহ আরও কয়েকজন মানব পাচারকারী দীপুকে সাগর পথে ইটালী পাঠানো কথা বলে লিবিয়ার কোন এক অজ্ঞাতস্থানে আটকে রেখে। এরপর তারা দীপুকে মারপিট করে ২৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করেন। মুক্তিপণের টাকা না পেলে তাকে হত্যা করে সাগরের পানিতে ফেলে দেয়ার কথা বলে আরও মারপিট করে। মানবচক্রের বাংলাদেশে তাদের সহযোগী নাভিদ ও কামালের নিকট বিকাশের মাধ্যমে পাঠাতে বলে। এমতাবস্থায় নওগাঁ সদর থানার দিপুর বড় ভাই মতিউর রহমান মামলা দায়ের করলে থানা পুলিশ টাকাসহ হাতেনাতে কুমিল্লা থেকে নাভিদ ও কামালকে গ্রেপ্তার করার সাথে সাথে জিম্মি থাকা ভিকটিমকে লিবিয়ায় ছেড়ে দেয়। আসামীদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। দিপুর বড় ভাই মতিউর রহমান জানান, দিপুর ইটালীতে অবৈধ্যভাবে যাওয়ার কথা আমাদেন সাথে আলোচনা করলে আমার নিষেধ করি। কিন্তু ওই মানবপাচারকারিদের সাথে যোগাযোগ করে ইটালীতে যাওয়ার জন্যে যোগাযোগ করে যাওয়ার সময় মারপির করে মুক্তিপণ দাবি করেন তারা। এ ঘটনায় পুলিশের সাথে যোগাযোগ দুই জনকে গ্রেপ্তার করার পর জিম্মি দশা থেকে দিপুকে ছেড়ে দেন। মানববন্ধন চলাকালে ভিডিও কলে দিপু জানান, তাকে লোহার রড় ও পাইপ দিয়ে মারপিট করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি বিপদমুক্ত ও সুস্থ ভাবে লিবিয়াতে জীবন যাপন করছেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার একেএম মামুন খান চিশতী, গাজিউর রহমানসহ পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ে কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •