অসহায় পরিবারের পাশে ঈদ উপহার নিয়ে “রূপসী নওগাঁ “

মোঃ ফিরোজ হোসাইন
স্টাফ রিপোর্টার:

পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে নওগাঁর আত্রাই ও রানীনগর উপজেলায় করোনার কারণে কর্মহীন এবং হতদরিদ্র ১০০ পরিবারের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ঈদ উপহার নিয়ে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “রূপসী নওগাঁ”।

সোমবার ও মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত দুটি টিম নওগাঁ জেলার আত্রাই ও রাণীনগর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে ঘুরে ঘুরে ১০০টি পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার তুলে দেন।

“রূপসী নওগাঁ” সংগঠনের ঈদ উপহার এর মধ্যে ছিল পোলাও চাল, লাচ্চা-সেমাই, চিনি, মিনি গুড়ো দুধের প্যাকেট, পেঁয়াজ ও রসুন। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “রূপসী নওগাঁ” এর ঈদ উপহার পেয়ে আত্রাই উপজেলার হাটকালুপাড়া গ্রামের আলাউদ্দিন বলেন, বাড়িত আসা খাবারগুলা কেউ এর আগে হামাকোক দিয়া যাইনি। লাইন ধরা থাকা লেয়া লাগতো। আজ হামার বাড়িত উপহারলা ধইয়া দিয়া গেল।

আসলে খবুই ভালো লাগিচ্ছে। হামি একজন শারিরীক প্রতিবন্ধী মানুষ মাসে ৭০০ টেকা পাই। সেডা দিয়া হামার তার সংসার চালানোও কষ্টকর হইয়া যায়। সামনে ঈদ এই উপহারগুলা পাইয়া অনেক উপকার হলো হামার।

রাণীনগর উপজেলার মিরাট গ্রামের শরিফুন্নেছা বেগম বলেন, অনেকই তো হামাকে মত গরীব মানুষোক সাহায্য করে। সেই সাহায্য লিবার জন্য লাইনে দাঁড়া থাকা লাগে। কিন্তু আজক্যা রূপসী নওগাঁর ছলেরা আসা মেলাগুলা উপহার দিয়া গেল। উপহারগুলা পাইয়া ভালো লাগলো। ঈদোত আর কিনা লাগবেনা কিছু।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “রূপসী নওগাঁ” এর পরিচালক ডেন্টিস্ট মোঃ খালেদ বিন ফিরোজ বলেন, ২০১৬ সালে কিছু উদ্যমী মানুষের সমন্বয়ে স্বেচ্ছাসেবী এ সংগঠনটি গড়ে তোলা হয়। মানবতার সেবায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের মুখে হাসি ফোঁটানোই এ সংগঠনের মূল উদ্দেশ্য। আমাদের পাশে দাঁড়িয়ে আমাদের সবাই সহযোগিতা করলে আমরা আরও মানুষকে সহযোগিতা করতে পারবো। তবে চেষ্টা করে যাচ্ছি সমাজের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর। আগামীতেও আমাদের এমন কার্যক্রম অব্যহত থাকবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “রূপসী নওগাঁ’র সদস্য মোস্তফা জামাল রিপন, মোনায়েম ইসলাম, ফরহাদ হোসেন, এনামুল হক,ফজলে রাব্বি ,গোলাম মোস্তফা প্রমুখ।