সারিয়াকান্দিতে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে টাকা ফেরত পেল প্রতিবন্ধী আব্দুল মালেক

6

সারিয়াকান্দি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ সারিয়াকান্দির ফুলবাড়ী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের শিল্পী বেগম (৩৫) নামে এক টাউটের সন্ধান পাওয়া গেছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তক্ষেপে প্রতিবন্ধি ভাতা করে দেওয়ার নামে নেওয়া টাকা ফেরত দেন প্রতিবন্ধি আব্দুল মালেকের কাছে। জানা গেছে, ফুলবাড়ী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের বালুয়ারতাইড় গ্রামের বাসিন্দা ওই শিল্পী বেগম। তার স্বামীর নাম মো: মাছুদ রানা (৪০)। সে বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধি ভাতা করে দেওয়ার নামে হরিণা, মাঝবাড়ী, বালুয়ারতাইড়, কুমড়াডাঙ্গা ও ভিটাপাড়া গ্রামের প্রায় দেড় শতাধিক লোকের কাছ থেকে ৪’শ হতে থেকে শুরু ৪ হাজার টাকা পর্যন্ত বিভিন্ন অঙ্কের টাকা পর্যন্ত হাতিয়ে নেন। টাকা দিলে ভাতা পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হবে বলে তাদেরকে জানান। এ বিষয়ে গত ২৭ সেপ্টেম্বর এলাকাবাসীর পক্ষে শফিউল আলম মুক্তার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত করলে ঘটনাটির সত্যতা মেলে। অবশেষে নোটিশের মাধ্যমে শিল্পী বেগকে অফিসে হাজির হতে বলা হয়। এসময় একই এলাকার শারীরীক প্রতিবন্ধি আব্দুল মালেক (২৬) এর কাছ থেকে টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করেন এবং সঙ্গে সঙ্গে আব্দুল মালেককে টাকা ফরত দেন। ১০ই নভেম্বরের মধ্যে অন্যান্যদের কাছ থেকে নেওয়া টাকা ফেরত দেওয়ার অঙ্গিকারনামায় স্বাক্ষর পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এ সময় সমাজসেবা অফিসার মো: নাইম হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী তরফদার, ওসি মিজানুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: রাসেল মিয়া বলেন, ওই নারী অকপটে দোষ স্বীকার করেছেন এবং এলাকায় মাইকিং করে নেওয়া টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

ক্যাপশন: সারিয়াকান্দির ইউএনও’র হস্তপেক্ষে অবৈভাবে নেওয়া টাকা ফেরত দিচ্ছেন শিল্পী বেগম।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •