দশমিনায় লঞ্চ থেকে নদীতে পড়ে সাইফুল নামে এক তরুণ নিখোঁজ 

27

পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি।। 

দশমিনায় লঞ্চ থেকে তেঁতুলিয়া নদীতে পড়ে সাইফুল ইসলাম (২৫) নামে এক তরুণ নিখোঁজ হয়েছেন । ঢাকা থেকে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী চরমোন্তাজ নৌ-পথে লঞ্চ যোগে আসার সময় শুক্রবার ভোরে দশমিনা উপজেলার বাঁশবাড়িয়া লঞ্চঘাটের পুর্ব পাশে এ ঘটনা ঘটে।

লঞ্চ কর্তৃপক্ষ, পুলিশ ও নিখোঁজের স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার পৌঁনে ৭টার দিকে ঢাকার সদরঘাট থেকে পূবালী-৫ নামের একটি লঞ্চে চর মোন্তাজ আসছিল সাইফুল, তাঁর বড় ভাই বাদশা বিশ্বাস ও এক স্বজন। ভোর পৌঁনে ৫টার দিকে লঞ্চটি দশমিনার লঞ্চঘাটে পৌঁছার আগে বাঁশবাড়িয়ার বীজবর্ধন খামার এলাকায় অতিক্রমকালে তেঁতুলিয়া নদীতে পড়ে নিখোঁজ হন সাইফুল। তিনি চরমোন্তাজ হানিফ বিশ্বাসের ছেলে।

এবিষয়ে পূবালী-৫ লঞ্চের মাস্টার ইনচার্জ মো. মনির হোসেন জানান, যাত্রী নদীতে পড়ে যাওয়ার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক লঞ্চ থামিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে তেঁতুলিয়া নদীর ওই স্থান গভীর ও ভাঙনকবলিত। লঞ্চের তৃতীয় তলার ডেকের যাত্রী ছিলেন সাইফুল। তৃতীয় তলা থেকেই যাত্রী নদীতে পড়েছে বলে জানতে পেরেছেন। তিনি এবং নিখোঁজ যাত্রীর স্বজনরা ঘটনাস্থলে রয়েছেন।

এবিষয়ে দশমিনা ফায়ার সার্ভিস টিম পরিচালনা কারি মো. তাহেরুল ইসলাম বলেন, সকাল ৭টার দিকে খবর পেয়ে পটুয়াখালী থেকে ডুবরী টিম এসে উদ্ধারকাজ চলছে। তবে তেঁতুলিয়া নদীর ওই স্থান গভীর ও ভাঙনকবলিত বলে স্রোত বেশির ফলে বিলম্ভ হচ্ছে।

এবিষয়ে দশমিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান বলেন, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের লোকজন নদীতে নিখোঁজ যাত্রীর উদ্ধারে কাজ করছেন। নিখোঁজের স্বজনরাও স্থানীয় লোকজনকে উদ্ধারে নেমেছেন। তবে কীভাবে বা কেন নদীতে পড়েছে, তা এখনো জানা যায়নি।