বরের চাচাকে বউভাতের গরু ক্রয়ে না নেওয়ায় সংঘর্ষে আহত ৩

9

জাহাঙ্গীর আলম,নেত্রকোণা প্রতিনিধিঃ

নেত্রকোণার বারহাট্রা উপজেলার নৈহাটি মড়লপাড়ায় বিয়ের দাওয়াত না দেওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে বরের বড় ভাই রানা মিয়া আহত হয়ে ঢাকায় পঙ্গু হাসপাতালের চিকিৎসা নিচ্ছেন, এ ঘটনায় আরো দুইজন আহত হয় ।

এলাকাবাসির সূত্রে  জানা গেছে গেল ১৭ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার দুপুর অনুমান ১২ টার দিকে উপজেলার মড়লপাড়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনায় রানা মিয়ার স্ত্রী সোমা আক্তার বাদী হয়ে নেত্রকোণার আমলী আদালতে মামলা করেন।

এলাকাবাসী ও পুলিশ এবং মামলার সূত্রে জানা গেছে, আইন উদ্দিন ফকিরের ছোট ছেলে রেহেন মিয়ার ১৭ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিয়ের দিন ছিল।

 বাদীর চাচা শ্বশুর,১/নং আসামী /জামাল(৫০)পিতামৃত কালা মিয়া, ২ং আসামী আপন(৩০)পিতা মনহর আলী,  ৩ নং আসামী  নুরুল আমিন (৪৬) পিতামৃত জবেদ আলী,৪নং আসামী মোস্তাকিম (২০) পিতা জামাল, ৫নং আসামী মঞ্জুল হক(৫৫) পিতামৃত শহর আলী,৬ নং মানিক (২৮) পিতা মঞ্জুল হক,৭ নং তপন (৩৫) পিতা মনহর আলী,৮নং রাজনী আক্তার( ৪০) স্বামী নূরুল আমিন, আটজনের নাম উলেক্ষ করে সোমা আক্তার বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

এজাহার সূত্রে জানা যায় বিয়ের বউভাতের গরু ক্রয় এর  সময় বরের চাচা ও বাদীর চাচা শ্বশুর   ১ নং আসামী জামাল কে  নেওয়া হলো না এই নিয়ে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে।

বারহাট্রা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ  লূৎফুল হক জানান আদালতের নির্দেশে মামলা রুজু করা হয়েছে, আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে, সকল আসামীরা পলাতক থাকায় তাদের কে তথ্য প্রযোক্তির সহাতায় অভিযান অব্যহত আছে।

তিনি আরো বলেন আহত রানা মিয়া জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।