ভুলে ভরা পাঠ্য বই সংশোধনের দাবিতে চট্টগ্রামে ছাত্র অধিকার পরিষদের মানববন্ধন

16

ইসমাইল ইমন চট্টগ্রাম প্রতিনিধি। 

পাঠ্য পুস্তকে চৌর্যবৃত্তি, ভুল তথ্য, সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ এবং ইতিহাস বিকৃতি করার প্রতিবাদে চট্টগ্রামে ছাত্র অধিকার পরিষদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত। ৬ষ্ঠ ও ৭ম শ্রেণির পাঠ্যবইয়ে নানা ভূল অসঙ্গতি,ন্যাশনাল জিওগ্রাফি থেকে কপি পেস্ট,ভিন্ন দেশের আইকন ব্যবহার ইত্যাদি বিষয় তুলে ধরে চট্টগ্রামে ছাত্র অধিকার পরিষদ এসবের প্রতিবাদ ও সংশোধনের দাবি জানায়।

 ২৩ জানুয়ারি সোমবার বিকাল ৩ টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব চত্বরে পূর্বঘোষিত ছাত্র অধিকার পরিষদ এর এ কর্মসূচি বাস্তবায়িত হয়। 

ছাত্র অধিকার পরিষদ চট্টগ্রাম উত্তর জেলা এর সাধারণ সম্পাদক তানজিম হাসান এর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ছাত্র অধিকার পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহসাংগঠনিক সম্পাদক শিক্ষানবিশ আইনজীবী লোকমান হোসেন,উত্তর জেলা ছাত্র অধিকার পরিষদ সভাপতি মাইনুল ইসলাম রুবেল, দক্ষিণ জেলা ছাত্র অধিকার পরিষদ সভাপতি যোবায়রুল আলম, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্র অধিকার পরিষদ এর সহসভাপতি আফজাল হোসাইন, সাংগঠনিক সম্পাদক ইমন মোহাম্মদ,চট্টগ্রাম মহানগর শ্রমিক অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব মোক্তার হোসেন, গণঅধিকার পরিষদ নেতা মনিরুজ্জামান বাবু,যুবনেতা সৈকত,পেশাজীবী অধিকার পরিষদের যুগ্ম সদস্য সচিব অর্কো সাইফুল,মহানগর সাহিত্য সম্পাদক মোঃ হাবীব, চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্র অধিকার পরিষদ নেতা তৌহিদুল ইসলাম, আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র অধিকার পরিষদ নেতা মোঃ রাইহান, পলিটেকনিক ছাত্র অধিকার পরিষদ নেতা মোঃ রিদুয়ান, চকবাজার থানা ছাত্র অধিকার পরিষদ সভাপতি আকবর হোসেন,চান্দগাঁও থানার সদস্য সচিব আল মামুন সহ বিভিন্ন থানা ইউনিটের নেতৃবৃন্দ। 

এসময় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে পুস্তক প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান থাকতে নিজ দেশের প্রকাশনা শিল্প ধ্বংস করে ভারত থেকে কেনো পাঠ্য পুস্তক প্রকাশ করতে হবে?এত বছর ধরে এই দেশের প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান থেকে কি পুস্তক প্রকাশিত হয়নি? বন্ধু রাষ্ট্রকে খুশি করতে গিয়ে নিজ দেশের কমল মতি ছেলে মেয়েদের ভবিষ্যৎ ধ্বংস করা হচ্ছে। অবিলম্বে ভুলে ভরা পাঠ্য বই সংশোধন করতে হবে। যে কমিটি এই বই প্রণয়ন করেছে তাদের দায়িত্ব থেকে অপসারন ও জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে।

ইতিহাস বিকৃতি, সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ইত্যাদির নিন্দা জানিয়ে নেতারা বলেন,এটা ভূল নয়, পরিকল্পিতভাবে জাফর ইকবাল গংরা নাস্তিক্যবাদ ছড়াচ্ছে এবং ইসলাম বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে। 

কোমলমতি শিশুদের ভুল তথ্য পরিবেশন ইত্যাদির কড়া নিন্দা জানান ছাত্র অধিকার পরিষদ এর নেতৃবৃন্দ। 

এসময় ছাত্র অধিকার পরিষদ এর যৌক্তিক আন্দোলন কে সমর্থন জানিয়ে শ্রমিক নেতা মোক্তার হোসেন বলেন আমাদের মাননীয় সরকার প্রধান বলেন স্মার্ট বাংলাদেশ উপহার দিয়েছেন।গলদে ভরা এ শিক্ষা ব্যবস্থা এগুলোই কি স্মার্ট বাংলাদেশের নমুনা? অবিলম্বে তা সংশোধন না করা হলে ছাত্র অধিকার পরিষদ এর সাথে শ্রমিক অধিকার পরিষদ রাজপথের কর্মসূচিতেও অংশ নেয়ার হুশিয়ারী দেন তিনি।

কেন্দ্রীয় ছাত্র অধিকার পরিষদ এর সহসাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন হুশিয়ারী উচ্চারন করে বলেন, আগামী ফেব্রুয়ারির ১ম সপ্তাহের মধ্যে তা সংশোধন পূর্বক জাতির কাছে ক্ষমা না চাইলে ছাত্র অধিকার পরিষদ অতীতের ন্যায় রাজপথে নেমে দাবি আদায় করে নেবার ঘোষণা দেন।