সাড়ে ৩ ঘন্টা রোদে দাড়িয়ে বিভাগীয় কমিশনারকে অভ্যর্থনা জানাতে শিক্ষার্থীরা

19

মোঃ কামরুজ্জামান হেলাল, পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি। পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার বাউফল আর্দশ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে ৯ নভেম্বর বুধ বার সকালে বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার আসবেন।

সুত্রে জানা গেছে, তাই এ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের উচ্চতর গনিত বিষয়ের টেস্ট পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। অন্যদিকে তাকে অভ্যর্থনা জানাতে এদিন সকাল ১০ টা থেকে বিকাল সাড়ে ৩ ঘন্টা পর্যন্ত কয়েকশ কোমলমতী শিক্ষার্থীদের রোদের মধ্যে দাঁড় করিয়ে রাখা হয় বলে জানা যায় । অতঃপর দুপুর দেড়টার দিকে বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার ওই বিদ্যালয় পরিদর্শনে আসেন। বিদ্যালয় কর্ততৃপক্ষ তাকে লালগালিচার অভ্যর্থনা জানিয়েছেন। শিক্ষার্থীরা বাধ্যযন্ত্র বাজিয়ে ও ফুল ছিটিয়ে তাকে শুভেচ্ছা জানান।

এসময় তার সাথে ছিলেন পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন, বাউফল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আল আমিন, বিভাগীয় কমিশনারের একান্ত সচিব নজরুল ইসলাম,সহকারী কমিশনার (ভূমি) বায়েজেদুর রহমানসহ সরকারী বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা বৃন্দগন।

এ বিভাগীয় কমিশনার ওই বিদ্যালয়ের কয়েকটি শ্রেণী কক্ষের পাঠদান পর্যবেক্ষন করেন এবং শিক্ষার্থীদের সাথে কুশল বিনিময় করেন। এরপর দুপুর দুইটায় বিদ্যালয়ের দোতালায় হল রুমে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের সাথে ও মতবিনিময় করেন।

বিকাল ৩টার দিকে তিনি বিদ্যালয় ত্যাগ করেন। এর আগে বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার এদিন দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বাউফল দাশপাড়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন। সেখানেও তাকে লালগালিচার অভ্যর্থনা জানানো হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল বিভাগীয় কমিশনারের সকাল ১০টায় বাউফলে এসে পৌঁছানোর কথা ছিল। কিন্তু তিনি আসেন দুপুর ১২টায় । সরাসরি চলে যান উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যলয়ে।

সেখান থেকে সাড়ে ১২টায় আসেন বাউফল দাশপাড়া মর্ডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। তারপর দুপুর দেড়টায় আসেন বাউফল আদর্শ উচ্চ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়।বাউফল আদর্শ উচ্চ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল বিভাগীয় কমিশনারের আগমন উপলক্ষ্যে বুধবার সকাল ৭টার মধ্যে সকল শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়। সে অনুযায়ি শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে উপস্থিত হন। এ বিদ্যালয়ের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক শিক্ষার্থীরা গন মাধ্যমের প্রতিনিধিদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, ‘স্যার আসবেন বলে আমরা বাসা থেকে কোন কিছু না খেয়েই সকালে বিদ্যালয় এসেছি ।

এরপর সকাল ১০টা থেকে আমাদের বিদ্যালয়ের প্রবেশ পথে রোদের মধ্যে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। দাঁড়িয়ে থাকতে থাকতে আমরা অনেকেই ক্লান্ত হয়ে পরেছি।’ উক্ত বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েক শিক্ষার্থী গণমাধ্যমর প্রতিনিধিদের কাছে বলেন, ‘আজ বুধবার আমাদের উচ্চতর গনিত বিষয়ের টেষ্ট পরীক্ষা ছিল। বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার স্যার বেলা ১০ টায় আসবেন বলে পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। তিনি এসেছেন দুপুর দেড়টায়। ইচ্ছে করলে স্কুল কতৃর্পক্ষ সকালে আমাদের পরীক্ষা নিতে পারতেন।

’ এ ব্যাপারে আদর্শ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহানারা বেগম গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের কে বলেন,‘ আজ (বুধবার) উচ্চতর গনিত বিষয়ের পরীক্ষা ছিল। তারিখ পরিবর্তন করে আগামী শনিবার নেয়া হয়েছে।’

এ বিষয় জানতে বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার এর মুুুঠোফোনে কল দেওয়া হলে নাকি তিনি নানা গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের বলেন, এই মুহূর্তে আমি কথা বলতে পারবো। আমি একটি প্রোগ্রামে আছি। ’ বিভাগীয় কমিশনারের একান্ত সচিব নজরুল ইসলাম বলেন,‘ ওই বিদ্যালয় কোন পরীক্ষা আছে তা কর্তৃপক্ষ আসার পূর্বে অবহিত করেননি।

খোঁজ খবর নিয়ে বিষয়টি দেখা হবে।’ প্রসঙ্গত: বর্তমানে বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার ( অতিরিক্ত সচিব) হলেন মো: আমিন উল আহসান।