সীমান্তে মিয়ানমারের ভিতরে বিকট বিস্ফোরণের শব্দে কাঁপছে তমব্রু

3

মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু , নাইক্ষ‍্যংছড়ি,নাইক্ষ‍্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নের তমব্রু সীমান্তে মিয়ানমারের ভিতর থেকে বিকট শব্দ করে মর্টারশেলের আওয়াজে ঐ এলাকার মানুষের মনে কাপন সৃষ্টি হয়েছে বলে বিভিন্ন সুত্রে জানা যায়।বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৭টা থেকে ১১টা পযর্ন্ত থেমে থেমে কয়েকটি আর্টিলারি মর্টারশেলের বিস্ফোরণের শব্দে কেপে ওঠে তমব্রু এলাকা,তার কিছু সময় বন্ধ থেকে আবারো কয়েকটি বড় বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পান ওই জনপদ বসবাসকারীরা।নাইক্ষ‍‍্যংছড়ি-মিয়ানমার সীমান্তের ঘুমধুম হতে আষারতলী পযর্ন্ত,যত গুলো সিমানা পিলারের পয়েন্ট রয়েছে তার মধ্যে বেশি স্পর্শকাতর অবস্থায় রয়েছে তমব্রুর ৩৪,৩৫, নং পিলার,এই দুই পিলারের মাঝখান দিয়েই সর্বোচ্চ বিস্ফোরণের আওয়াজ ভেসে আসে মিয়ানমারের কিছুটা অভ্যন্তর থেকে বাংলাদেশের সীমানাই।কথা হয় ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নাম্বার ওয়ার্ডের ইউপি সদ‍্যস তমব্রু এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা মোঃ আলমের সঙ্গে,তিনি বলেন এলাকার মানুষ এক কঠিন সময় অতিক্রম করছে,অনেকে রাতে ঘুমাতে পারছেনা,আবার আনেকে রাতের বেলায় সীমান্ত জনপদের নিজ বাড়ি ছেড়ে দুরের স্বজনদের বাড়িতে রাত্রি যাপন করছেন।ঘুমধুমের স্থানীয় এক মিডিয়া কর্মি জানান বুধবারের চাইতে বৃহস্পতিবারের বিস্ফোরণ হয়েছে বেশি এবং বিস্ফোরিত শব্দ ছিল অনেক বড়।তমব্রু বাজারের ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হোসেন বলেন, আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি এই আতঙ্ক যতদিন না কাটছে ততদিন দিনের বেলাতে কিছু সময় দোকানদারি করব,পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আবার আগের নিয়মে ফিরে আসব।এ বিষয়ে ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ বলেন,তিনিও শুনেছেন সীমান্ত পয়েন্টে মিয়ানমারের ভিতর থেকে দেশের অভ‍্যন্তরে ভেসে আসা বিকট শব্দের কথা। এই নিয়ে তমব্রুবাসী আতঙ্কে দিন পার করছে।