বাঁশখালীতে রাতের আঁধারে টিসিবি পন্য বিক্রির ঘটনায় ৪ জনকে আসামী করে মামলা

20

এনামুল হক রাশেদী, বাঁশখালী(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃচট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলায় নিস্ম আয়ের জনগোস্টির জন্য সরকারের ভর্তুকি মুল্যে বরাদ্ধকৃত TCB পন্য মধ্য রাতে চুরি করে ন্থানীয় বাজারের বিভিন্ন দোকানে বিক্রির ঘটনায় ৪ জনকে আসামী করে মামলা করেছেন সাধানপুর ইউপি সচিব নোভেল ভট্টাচার্য(৪৩)। ২১ সেপ্টেম্বর’২২ ইং বাদী নোভেল ভট্টাচার্য বাঁশখালী থানায় হাজীর হয়ে সরকারী টিসিবি পন্য রাতের অাঁধারে কালো বাজারীতে বিক্রির অপরাধে সুনিদ্দৃষ্ট ৪ জনকে আসামী করে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫ ধারায় মামলা রজু করেন। আসামীগন হলেন, ১. আমান উল্লাহ চৌধুরী(৫৭), পিতাঃ মৃত হাবীব উল্লাহ চৌধুরী, সাংঃ পুর্ব বৈলগাঁও, ২ নং ওয়ার্ড, সাধনপুর ইউপি। সে উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের টিসিবি এবং অামান এন্ড ব্রাদার্সের স্বত্তাধিকারী ২. মারেফুল হক(২৮), পিতাঃ শেহাবুল হক, সাংঃ ঐ, টিসিবি পন্য বিক্রয় কর্মি, ৩. রাহাদুল অালম রিয়াদ(৩২), পিতাঃ মোঃ তৌহিদুল আলম, সাংঃ বানিগ্রাম, ৪ নং ওয়ার্ড, সাধনপুর ইউপি, টিসিবি পন্য বিক্রয় কর্মি, ৪. মোহাম্মদ রাসেল(২৪), পিতাঃ নুরুল আলম, স্বত্তাধিকারী, আলম স্টোর, গুনাগরী, সাংঃ বানিগ্রাম, ২ নং ওয়ার্ড, কালিপুর ইউপি। বাদী সাধনপুর ইউপি সচিব নোভেল ভট্টাচার্য মামলার এজাহারে বলেন, বাহারছড়া ইউপি’র তালিকাভূক্ত দরিদ্র ও নিন্ম আয়ের জনগোস্টির জন্য সরকারের ভর্তুকি মুল্যে বরাদ্ধকৃত টিসিবি পন্য সরবরাহ না করে আসামীগন পরস্পর যোগসাজশে রাতের অাঁধারে অধিক মুল্যে আসামী রাসেলের ব্যক্তিগত দোকানে বিক্রয় করার সময় গোপনসূত্রে উপজেলা নির্বাহি অফিসারের কাঁছে সংবাদ আসলে ইউএনও’র নির্দেশে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বাঁশখালী থানার পুলিশ সহ ঘটনাস্থলে গিয়ে মালামাল সহ ট্রাকটি আটক করে থানা হেফাজতে নিয়ে আসে। ঘটনাটি সাধনপুর ইউনিয়নে সংগঠিত হওয়ায় উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে ইউপি সচিব বাদী হয়ে মামলা করেন বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়।বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) কামাল উদ্দিন বলেন, বাঁশখালীতে সরকারী টিসিবি পন্য রাতের অাঁধারে অধিক মুল্যে কালো বাজারীতে বিক্রয়ের ঘটনায় সাধনপুর ইউপি সচিব নোভেল ভট্টাচার্য বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ঠ ৪ জনকে আসামী করে বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫ ধারায় বাঁশখালী থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন। দ্রুত তদন্ত সাপেক্ষে আসামীদের বিরোদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আসামীরা পলাতক থাকলেও দ্রুতসময়ের মধ্যে তাদেরকে গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।উল্লেখ্যঃ ২০ সেপ্টেম্বর’২২ ইং বুধবার দিবাগত রাত ০১ টার সময় নির্ভরযোগ্য সূত্রে সংবাদ পেয়ে বাহারছড়া ইউনিয়নের দরিদ্র জনগোস্টির জন্য বরাদ্ধকৃত সরকারের ভর্তুকি মূল্যের টিসিবির ৬৪০ লিটার সয়াবিন তৈল, ৩২০ কেজি(১৬ বস্তা) চিনি ও ৬৫০ কেজি(১৩ বস্তা) ডাল। সরকারী ভর্তুকি মুল্যে যার আনুমানিক মুল্য ১,৩০,২৫০ টাকা। এই সময় টিসিবির পণ্য পরিবহনকারী ট্রাকের ড্রাইভার জিয়াউল হক, হেলপার রেজাউল করিম বাবু, মোহাম্মদ পাপ্পু, সাইফুল ইসলাম সহ মোট ৪ জনকে আটক করা হলে ঘটনার সাথে তাদের সংশ্লিষ্ঠতা খুঁজে না পাওয়ায় তাদেরকে মামলার স্বাক্ষী করে ছেড়ে দেওয়া হয়।।