মাদ্রাসার ছাত্রীকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ: শিক্ষক গ্রেফতার

24

নিজস্ব প্রতিবেদক,খুলনা

খুলনা হতে শিশু ধর্ষণ মামলার প্রধান পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

গ্রেফতারকৃত হলেন,শিক্ষক মো. মহিবুল্লাহ (২৪)।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে র‍্যাব-৬ এর সহকারী পুলিশ সুপার ( মিডিয়া) তারেক আমান বান্না এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

র‍্যাব জানান,ভিকটিম কেএমপি খুলনার সোনাডাঙ্গার একটি মাদরাসায় ০৮ মাস যাবত পড়াশুনা করছে। পড়াশুনা করার সুবাদে ভিকটিম উক্ত মাদ্রাসার নিচ তলায় তার সহপাঠীদের সাথে থাকতো। গত ০৮ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার তার সহঠীপারা মাদরাসার আবাসিক ভবন ছেড়ে নিজ বাড়ীতে গেলে ভিকটিম মাদ্রাসার আবাসিকে একা অবস্থান করে। ভিকটিম গত ০৯ সেপ্টেম্বর শুক্রবার ফজরের নামাজ পড়ে মাদ্রাসার আবাসিকে একা রুমে শুয়ে ছিল। ভিকটিম রুমে একা থাকার সুযোগে আসামী মাদ্রাসা শিক্ষক মো. মহিবুল্লাহ ভিকটিমের রুমে প্রবেশ করে ভিকটিমের ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোড় পূর্বক ধর্ষণ করে এবং ভিকটিমকে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখিয়ে রুম থেকে বের হয়ে যায়। পরবর্তীতে ভিকটিম বিষয়টি তার পিতাকে ফোন করে জানায়। ভিকটিমের পিতা তাৎক্ষণিক নিজে বাদী হয়ে কেএমপি খুলনার সোনাডাঙ্গা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করে এবং ঘটনাটি র‌্যাব-৬ এ অবহিত করেন। উক্ত ঘটনার পর থেকে আসামীকে গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-৬ (সদর কোম্পানি) এর একটি আভিযানিক দল ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং গোয়েন্দা তৎপরতা অব্যহত রাখে।

তিনি জানান,র‌্যাব-৬ (সদর কোম্পানি) এর একটি চৌকস আভিযানিক দল গোয়েন্দা তথ্যের মাধ্যমে জানতে পারে যে, উক্ত ধর্ষক কেএমপি খুলনার লবণচরা থানা এলাকায় অবস্থান করছে। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল রাতে কেএমপি খুলনার লবনচরা থানার বাগমারা এলাকায় অভিযান পরিচালনা পলাতক আসামী মাদ্রাসা শিক্ষকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীকে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যে কেএমপি খুলনার সোনাডাঙ্গা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।