বিনোদন পার্কের আড়ালে দেহব্যবসা ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে জেল-জরিমানা

242

ঘোড়াঘাট(দিনাজপুর) থেকে মাহতাব উদ্দিন আল মাহমুদ :
দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে মোজাম বিনোদন পার্কে অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। বৃহস্পতিবার বিকেলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাফিউল আলমের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়। উপজেলার বুলাকীপুর ইউনিয়নের বলগাড়ী বাজারের পাশে অবস্থিত বিনোদন পার্কের আড়ালে পরিচালিত এই দেহব্যবসা কেন্দ্রে ্অভিযান চালানো হয়। আটক করা হয়েছে বিনোদন কেন্দ্রের মালিক,জামাতা,খদ্দের ও ৩ নারীকে।
ভ্রাম্যমাণ আদালতে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান ও অর্থ দন্ড করা হয়েছে। বিনোদন কেন্দ্রের মালিক উপজেলার বলগাড়ী বাজারের মৃত কফিল উদ্দিন মন্ডলের পুত্র মোজাম্মেল হক মন্ডল (৬৮) ও জামাতা জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলার পিয়ারা গ্রামের সুজাউল ইসলামের ছেলে রাজু সরকারকে (৩২) ১ মাস এবং খদ্দের ঘোড়াঘাট উপজেলার লোহারবন্দ গ্রামের আব্দুর রশিদের পুত্র ওয়ারেছ আলীকে ১৫ দিনের সাজা প্রদান করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

এছাড়াও আটক আরো ৩ পতিতা নারীকে অর্থদন্ড করে সর্তক করে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

অভিযানের নেতৃত্বে থাকা ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাফিউল আলম বলেন, দীর্ঘদিন থেকেই এই বিনোদন পার্কের নামে অভিযোগ করে আসছেন স্থানীয় লোকজন। পার্কটির মালিককে স্থানীয় প্রশাসনের প¶ থেকে একাধিকবার নিষেধ করা হয়েছে। নিষেধ অমান্য করে অসামাজিক কার্যক্রম চলমান রাখায় বিনোদন পার্কটিতে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। বিধি অনুযায়ী নিষেধ করা সত্তে¡ও গণ উপদ্রব সংগঠনে লিপ্ত হওয়ায় দন্ডবিধির ১৮৬০ এর ২৯১ ধারা অনুযায়ী তাদেরকে সাজা প্রদান ও ্অর্থ দন্ড করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের শুরুর দিক থেকে বিনোদন কেন্দ্রের নামে প্রকাশ্য পতিতাবৃত্তি করিয়ে আসছে কেন্দ্রটির মালিক। পতিতাবৃত্তির জন্য সেখানে ছোট ছোট বেশ কয়েকটি ইটের ঘরও তৈরি করেছে বিনোদন কেন্দ্রের মালিক। আশপাশের বিভিন্ন জেলা থেকে পতিতা নারীদেরকে চুক্তি ভিত্তিক নিয়ে এসে সেখানে পতিতাবৃত্তি করানো হয়।

গত ৩১ মার্চ বিনোদন কেন্দ্রটি অভিযান পরিচালনা করে অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িত থাকার ্অভিযোগে এক ইউপি সদস্য সহ এক পতিতা নারীকে আটক করে কারাগারে পাঠিয়েছিল ঘোড়াঘাট থানা পুলিশ। তারপরেও পতিতাবৃত্তির মত অসামাজিক কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল বিনোদন কেন্দ্রটির মালিক মেজাম্মেল হক মন্ডল ও তার জামাতা।

ঘোড়াঘাট থানার ্অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু হাসান কবির জানান, ঘোড়াঘাট উপজেলার বলগাড়ি বাজার এলাকার মোজাম্মেল মন্ডল (৬৮) ও তার জামাতা কালুপাড়া এলাকায় একটি আম বাগান তৈরী করে বাগানের ভিতর ছোট ছোট ঘর তৈরি করে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছেলে মেয়েসহ পতিতাদের মাধ্যমে অসামাজিক কর্মকান্ড পরিচালনা করে আসছিলেন। ইতিপ‚র্বেও অভিযান পরিচালনা করে কয়েকজনকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছিল। এরই ধারাবাহিকতায় পহেলা বৈশাখকে কেন্দ্র করে এমন কর্মকাণ্ড পরিচালনা হতে পারে ধারণা করে আজ বিকেলে থানা পুলিশ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী ্অফিসারের ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করে তাদের আটক করে।