কোম্পানীগঞ্জে ছিনতাইকালে ৩ পুলিশ সদস্যকে ধাওয়া করে ধরলো জনতা

24

নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জ বেলায়েত হোসেন বেলাল :

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে মুছাপুর ইউনিয়নের ছোটধলীতে ছিনতাইকালে ফেনী জেলার সোনাগাজী মডেল থানার তিন পুলিশ সদস্যকে আটক করেছে স্থানীয় জনতা। এসময় তাদের কাছ থেকে ছিনতাইকৃত দেড়লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১২টায় কোম্পানীগঞ্জের মুছাপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড ছোটধ্বলি গ্রামে এবং চরদরবেশ ইউনিয়ন সিমান্তবর্তী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃত পুলিশরা হচ্ছে সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. জহিরুল হকসহ আরও দুই কনস্টেবল ফেনীর সোনাগাজীর থানার আদর্শগ্রাম তদন্ত কেন্দ্রে কর্মরত রয়েছেন।

মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদ্য নির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. আইয়ুব আলী বলেন, রাতে দোকান বন্ধ করে মুছাপুর ইউনিয়নে ছোটধ্বলি গ্রামের ব্যবসায়ী শেখ ফরিদ বাড়ি ফেরার পথে রাস্তার ওপর তিন পুলিশ সদস্য তাকে ইয়াবা ব্যবসায়ী বলে অটোরিকশায় তুলে মারধর শুরু করেন। পরে ব্যবসায়ীর কোমরে থেকে দেড়লাখ টাকার বান্ডিল ছিনিয়ে নিয়ে উপস্হিত পুলিশ সদস্যরা তাকে রাস্তার পাশে ফেলে দেন।

‘ব্যবসায়ী শেখ ফরিদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ধাওয়া করে সিএনজিসহ তিন পুলিশকে আটক করেন। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ সদস্যদের কাছ থেকে ব্যবসায়ীর দেড়লাখ টাকা উদ্ধার করি এবং ফেনীর পুলিশ সুপারের অনুরোধে তাদেরকে সোনাগাজী থানা পুলিশের হাতে তুলে দিই।’

সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাজেদুল ইসলাম পলাশ বলেন, আদর্শগ্রাম তদন্ত কেন্দ্রের ৩ পুলিশ সদস্যের সঙ্গে মুছাপুরের স্থানীয় লোকজনের সামান্য ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে। আমি বিষয়টি আমার উর্ধ্বতন কর্মকতাকে অবহিত করেছি, বিষয়টি তদন্ত দেখা হচ্ছে।