কবিতাঃ “চাষী” কলমেঃ মিতা পোদ্দার

31

কবিতাঃ “চাষী।”
কলমেঃ মিতা পোদ্দার।

কলমের কালিতে তুলছি ধরে
খেটে খাওয়া মানুষের কথা,
সৃষ্টিকর্তার পরেই যে
চাষী ভাই অন্ন দাতা।

বিবেকের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ
আমরা বারেবার,
চাষী ভাইয়ের কষ্টতে
জেগে উঠুক কষ্ট সবার।

সকাল হতেই লাঙ্গল, কুঠার
তুলে নেয় চাষী হাতে,
অক্লান্ত পরিশ্রমেই
সারাটি দিন তাদের কাটে।

চাষ করেও ভাত জোটেনা
পরিবারের জন্য,
চাষী ভাইয়ের মূল্য নেই
দেশ কিসে তবে ধন্য?

রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে
চাষী ফলায় ধান,
একটু ভেবে দেখতো
রাখছি কী তার মান?

হাত বাড়ালেই পাচ্ছি সবে
রাজকীয় ভোগ,
সেই খাদ্য ফলাতেই
চাষী ভাইয়ের কী দূর্ভোগ?

উৎপাদনে চাষী ভাইয়ের
নেই যে তুলনা
গরীব বলে কেউ তারে
কখনোই ভুলোনা।

ভাবেনা কেউ এদের নিয়ে
সোনার বাংলাদেশে,
ঝড় তুফানেই জীবন কাটে
চাষীর অবশেষে।