নেত্রকোনা সড়ক দুর্ঘটনায় আহত সেই ছাত্রী স্বর্ণার পাশে ইউএনও

46

মোঃ জুয়েল রানা নেত্রকোনা কলমাকান্দা প্রতিনিধিঃ

ময়মনসিংহ-ঢাকা সড়কে দুর্ঘটনা আহত মাদ্রাসা ছাত্রী স্বর্ণার চিকিৎসার সহায়তা নিয়ে পাশে দাঁড়ালেন কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মইনউদ্দিন খন্দকার।

সোমবার ( ২১ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যার পর স্বর্ণার গ্রামে বাড়ী সান্দিকোনা ইউনিয়নে ভঙ্গানিয়া গ্রামের বাড়িতে গিয়ে তাঁর চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন ইউএনও মোঃ মইনউদ্দিন খন্দকার। পরে আহত স্বর্ণার বাবা রতন মিয়ার হাতে আর্থিক সহায়তা তুলে দেন তিনি।

উল্লেখ্য, কেন্দুয়া উপজেলার সান্দিকোনা ইউনিয়নে ভঙ্গানিয়া গ্রামের দরিদ্র রতন মিয়ার কন্যা ও
ভরাপাড়া কামিল মাদ্রাসার দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আহত স্বর্ণা বেগম। করোনা কারণে মাদ্রাসা বন্ধ থাকায় দরিদ্র বাবার বোঝা না হয়ে ঢাকার বাড্ডা এলাকায় একটি সুপার সপে চাকুরী নেন। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি বাড়ি থেকে ঢাকা কর্মস্থলে যাওয়ার পথে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের কাজির শিমলা নামক স্থানে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হন।

আহত স্বর্ণার দুই পা ভেঙ্গে গেছে এবং মাথায় মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হন। স্বর্ণার চিকিৎসার সাহায্য চেয়ে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ ফেইসবুকে নিবেদন জানানোর বিষয়টি নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক কাজি মোঃ আব্দুর রহমানের নজরে আসলে ইউএনও মইনউদ্দিন খন্দকারকে মেয়েটি বিষয়ে খোঁজ-খবর নেওয়ার জন্য বলেন তিনি। বর্তমানে ঢাকায় একটি পুঙ্গু হাসপাতালে স্বর্ণা বেগম চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ইতিমধ্যে আরো কয়েকজন মানবিক সহায়তার হাত বাড়িয়েছেন বলে জানা গেছে।