লক্ষ্মীপুরের রক্তে ভেজা নিস্প্রাণ মাদরাসা ছাত্র সাজ্জাদ

10

সোহেল হোসেন লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা মাদ্রাসাছাত্র সাজ্জাদ হোসেন (৭) বালুবাহী পিকআপ ভ্যান চাপায় মারা গেছে৷ মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০দশ টার দিকে উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের শৈরশৈই মারকাজুল উলুম ইসলামি হাফেজিয়া মাদরাসা সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। সাজ্জাদ একই মাদ্রাসার ছাত্র। এই সময় স্থানীয়রা পিকআপভ্যান চালক মাসুদ আলমকে আটক করেছে। মাসুদ উপজেলার ভোলাকোট গ্রামের রাজারামপুর গ্রামের বাসিন্দা। নিহত সাজ্জাদ উপজেলার কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের পূর্ব বিঘা গ্রামের কাজী বাড়ির দিনমজুর ইউছুফ হোসেনের ছেলে। সাজ্জাদ মাদ্রাসায় আবাসিকে থেকে পড়ালেখা করছে। তার মা অন্যের বাসায় কাজ করে আসছে। স্থানীয় সূত্র জানায়, ঘটনার সময় সাজ্জাদ মাদ্রাসার সামনে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিল। হঠাৎ বালুবাহী পিকআপভ্যান এসে তাকে পিষে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। পড়নে থাকা পাঞ্জাবি রক্তে ভিজে আছে। নিথর দেহটি আশপাশের লোকজন রাস্তার পাশ থেকে নিয়ে মাদ্রাসার বারান্দায় চাদর দিয়ে ঢেকে রেখেছেন। যেন পিকআপ দিনমজুর বাবা ও গৃহপরিচারিকা মায়ের শ্রম আর স্বপ্ন পিষে মেরেছে।
এই ব্যাপারে রামগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কার্তিক চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে৷ চালক আটক হয়েছে কি না তা এখন আমি নিশ্চিতভাবে বলতে পারবো না।