মিরসরাইয়ে র‌্যাবের অভিযানে আটক জে.এম ট্রেডার্সের কাপড়ের রোল চোর চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার

21

মিরসরাই প্রতিনিধিঃ

মিরসরাইয়ে কাভার্ডভ্যানে পণ্য পরিবহনের সময় জেএম ট্রেডার্সের ফেব্রিক্স চুরি করে নিয়ে যাওয়া চোর চক্রের তিন সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-৭।
সোমবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বিকালে উপজেলার বারইয়ারহাট এলাকা থেকে এই চক্রের তিন সদস্যকে আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৫ লাখ ৯৫ হাজার টাকা মূল্যের ১১টি কাপড়ের রোল উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ থানার পাদরি এলাকার নজরুল ইসলামের পুত্র জাহিদুল ইসলাম (২৮), চাঁদপুর জেলার কচুয়া থানার কুন্ডপুর এলাকার মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে শহিদ উল্লাহ (৪৭) এবং পটুয়াখালী জেলার মির্জাপুর থানার দক্ষিণ গাবুয়া এলাকার আলী হাসনের ছেলে আল আমিন (২৫)। তারা সকলেই আটক হওয়া ট্রাকের চালক ও হেলপার।

র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এস এ পরিবহনের বারইয়ারহাট শাখায় অভিযান পরিচালনা করে ফেব্রিক্স (কাপড়ের রোল) বুকিং করার সময় তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের হেফাজতে থাকা কাপড়ের ১১টি রোল উদ্ধার করা হয়েছে। যার আনুমানিক মূল্য ৪ লক্ষ ৯৫ হাজার টাকা।
উল্লেখ্য, ২০ ফেব্রুয়ারি জেএম ট্রেডার্সের কাপড়ের রোল চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ঢাকা পৌঁছে দেওয়ার জন্য কাভার্ডভ্যানের চালক জাহিদুল ইসলামের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয় প্রতিষ্ঠানটির। চুক্তি অনুযায়ী সেদিনই চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ৩০০টি ফেব্রিক্স কাপড়ের রোল কাভার্ডভ্যানে লোড করে চালানসহ ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা করে জাহিদুল। কিন্তু ঢাকা যাওয়ার পথে কৌশলে গাড়ির পিছনে লকের সঙ্গে সংযুক্ত সিলগালা অক্ষত রেখে ১১টি ফেব্রিক্স কাপড়ের রোল চুরি করে। পরে কাপড়ের রোলগুলো মিরসরাইয়ের বারইয়ারহাট এস এ পরিবহনের মাধ্যমে চট্টগ্রাম নগরীর খাতুনগঞ্জ এলাকায় পাঠানোর জন্য বুকিং করার চেষ্টা করে ।

জোরারগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু সাঈদ জানান, আনারুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি বাদি হয়ে একটি মামলা (নং-১৯) দায়ের করেছেন।
মঙ্গলবার সকালে আটককৃত আসামিদের চট্টগ্রাম কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।