লালানগর উচ্চ বিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

26

এম. মতিন, চট্টগ্রাম।

সারাদেশের ন্যায় যথাযথ ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করেছে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার হোচনাবাদ লালানগর উচ্চ বিদ্যালয়।

সোমবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে স্কুল মাঠে নির্মিত শহীদ মিনারে ভাষা শহীদের প্রতি ফুলেল শ্রদ্ধা জানায় স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অতিথিরা।

এ উপলক্ষ্যে স্কুলের হলরুমে `আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের গুরুত্ব শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক বাবু বাদল কুমার বড়ুয়ার সভাপতিত্বে আলোচনা সভার প্রধান আলোচক ছিলেন উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মাহমুদুল হাসান।

অনুষ্ঠানের প্রধান আলোচক মোঃ মাহমুদুল হাসান বলেন, ‘৫২’র ভাষা আন্দোলনের ভিত্তির উপর আমাদের স্বাধীনতা এসেছে। ভাষা আন্দোলনে বাঙালি রক্ত দিয়ে প্রমাণ করেছে যেকোনো অপশক্তিকে কীভাবে মোকাবেলা করতে হয়। আর এই ভাষা-সংগ্রামের আন্দোলনের মধ্য দিয়েই স্বাধীনতার স্বপ্নকে বাঙালির অস্তিত্বে জাগ্রত করেছিল স্বাধীনতার মহানায়ক ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’।

তিনি আরও বলেন, ‘আগামীতে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হলে অবশ্যই ছাত্র-ছাত্রীদের ভাষা আন্দোলনের সঠিক ইতিহাস ও ঐতিহ্য জানাতে হবে। যাতে আগামী প্রজন্মের শিশুদের আবেগ অনুভূতির সঙ্গে বাংলা সংস্কৃতির পরিচয় ঘটে।’

সভাপতির বক্তব্যে প্রধান শিক্ষক বাবু বাদল কুমার বড়ুয়া বলেন, বাংলা অত্যন্ত সমৃদ্ধ এবং অনেক ত্যাগ আর শহীদের রক্তের দামে কেনা আমাদের মায়ের ভাষা। কেননা পৃথিবীতে একটি জাতি আছে যারা ভাষার জন্য রক্ত দিয়েছে। তাই আগামী প্রজন্মকে বাংলা ভাষার সঠিক ইতিহাস জানতে হবে, তবেই বায়ান্ন ও একাত্তরের চেতনায় শাণিত হতে পারবে। কোন অপসংস্কৃতি যেন আমাদের ভাষা- মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে গ্রাস করতে না পারে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। তাহলেই সালাম জব্বার রফিক সফিকের রক্ত বৃথা যাবে না।’

সিনিয়র শিক্ষক বাবু প্রদীপ কুমর সাহার সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বিশেষ অথিতি ছিলেন, স্কুলের দাতা সদস্য আবুল ফজল।
বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক আবু তালেব, মাষ্টার জাফর আহমেদ, মাষ্টার মোহাম্মদ আনিস, মাষ্টার নুরুল করিম ও মাষ্টার মোহাম্মদ আলমগীর প্রমূখ।

অনুষ্ঠান শেষে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের হেড মাওলানা মোঃ সাজ্জাদুল ইসলাম।