একুশের অবিনাশী চেতনায় রুখতে হবে সকল অপশক্তি : ড.অনুপম সেন

29

সূর্যাস্তের পর প্রদীপ শিখা প্রজ্বলনের মধ‍্য দিয়ে অপশক্তির সকল নিকষকালো অন্ধকার দূর করার দৃপ্তশপথে মাতৃভাষা বাংলার জন‍্য আত্মাহুতি দেওয়া বীর শহীদদের কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেছে চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগর সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম -মুক্তিযুদ্ধ ‘৭১।
আজ ২০ ফেব্রুয়ারি রবিবার বিকেলে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত স্মরণানুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একুশে পদকপ্রাপ্ত সমাজবিজ্ঞানী প্রফেসর ড.অনুপম সেন বলেছেন, ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি ঐতিহাসিক দিনটি বাঙালির আত্মপরিচয়ের সাহসী ঠিকানা। অমর একুশের পথ ধরেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের অসমসাহসী ও দূরদর্শী নেতৃত্বে স্বাধিকার ও স্বাধীনতা আন্দোলন সর্বোপরি মহান মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদের জীবনের বিনিময়ে বাঙালির বিজয় অর্জিত হয়েছে।বিশ্বের ইতিহাসে বাঙালিই একমাত্র জাতি যারা নিজের মাতৃভাষায় কথা বলার অধিকার রক্ষায় জীবন দিয়েছে। তিনি বলেন, আজও বাঙালি ও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শেষ হয় নি। সুযোগ পেলেই মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রকারীরা ছোবল মারতে চায়। এহেন ঘৃণ্য অপতৎপরতার বিরুদ্ধে নতুন প্রজন্মকে সজাগ ও সচেষ্ঠ থেকে একুশের চেতনায় ঐক্যবদ্ধভাবে দেশবিরোধী অপশক্তিকে রুখে দিতে হবে।
সংগঠনের মহানগর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা.সরফরাজ খান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও জেলার সাধারণ সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আলম মন্টু, প্রধান আলোচক ছিলেন কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক বেদারুল আলম চৌধুরী বেদার। বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজল আহমদ,বীর মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়া,বীর মুক্তিযোদ্ধা গৌরী শংকর চৌধুরী,মো. সেলিম চৌধুরী, এডভোকেট সাইফুন নাহার খুশী, সাহেদ মুরাদ শাকু, হাজী সেলিম রহমান,জসীম উদ্দিন,মনোয়ার জাহান মনি, নুরুল হুদা চৌধুরী,নাজিম উদ্দিন,মঈনুল আলম খান,পংকজ রায়, ডা.ফজলুল হক সিদ্দিকী,এড.কামরুল আযম টিপু,এডভোকেট রোখসানা আকতার,উপাধ‍্যক্ষ চন্দন দত্ত,মোহাম্মদ আইউব,সাধন চন্দ্র দাশ,কামাল উদ্দিন,রাজীব চন্দ,মুস্তাফিজুর রহমান বিপ্লব,দীপন দাশ, মোজাম্মেল মানিক,নবী হোসেন সালাউদ্দিন,মো.হোসেন চৌধুরী সাদ্দাম,ইসমে আজিম আসিফ,ইঞ্জিনিয়ার ইয়াকুব মুন্না, এস এম রাফি,শাহনাজ সোহানা,হোসেন শরীফ বাবু,আচঁল চক্রবর্তী, ইঞ্জিনিয়ার নাসির উদ্দিন প্রমূখ।