করোনা সংক্রমণ রোধে ব্রাহ্মণবাড়িয়া তথ্য অফিসের ব্যাপক প্রচার- প্রচারণা

21
Exif_JPEG_420

সোহেল সরকার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা তথ্য অফিসারের নেতৃত্বে জেলা সদর সহ সকল উপজেলায় কোভিড ব্যবস্থা ও প্রচার-প্রচারণা ২০ ফেব্রুয়ারি রবিবার সকল ১০টা থেকে মাক্স, লিফলেট, হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা তথ্য অফিসার মোঃ আসাদুজ্জামান কাউসার গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ব্যাপক কোভিক ভ্যাকসিন প্রধান কার্যক্রম রয়েছে। সেবা বিভাগ সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৬-২-২০২২ শনিবার দেশব্যাপী একদিনে এক কোটি কোভিড ভ্যাকসিন প্রদানের কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে।

এই কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে যারা এখনো কোভিড ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেননি তাদের সকলকে কোভিক ভ্যাকসিনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। পরবর্তীতে কোভিড ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ কার্যক্রম জোরদার করা হবে।বর্তমানে স্থানীয় কেন্দ্র প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত কোভিক ভ্যাকসিন প্রদান করা হচ্ছে।

নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত ১২ বছরের ঊর্ধ্বে সকলকে এই ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে হবে।

আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি আপনার এলাকায় অতিরিক্ত অস্থায়ী কেন্দ্র স্থাপনকরে কোভিক ভ্যাকসিন প্রদানের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
কোভিক১৯ প্রতিরোধে ভ্যাকসিন একটি কার্যকারি সমাধান। কোভিক ভ্যাকসিনে মৃত্যুঝুঁকি কমায়। সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে যারা অন্তত ২ ডোজ কোভিক ভ্যাকসিন নিয়েছেন তাদের অধিকাংশই হাসপাতালে যাওয়ার প্রয়োজন হয়নি।

কোভিক ভ্যাকসিন গ্রহণ করেনি তারা আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিকটস্থ টিকা কেন্দ্রে গিয়ে কোভিক ভ্যাকসিন গ্রহণ করার অনুরোধ করা হয়।টিকাকেন্দ্রে আসার সময় অবশ্যই মাক্স পরে আসতে হবে। কোভিক ভ্যাকসিন নেওয়ার পরেও সঠিকভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর সহ সকল উপজেলায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার , মাক্স, লিফলেট, বিতরণসহ মাইকিং এর মাধ্যমে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা তথ্য অফিস।