দ্রব্যমূল্যের উর্ধবগতি প্রতিরোধে গনঅধিকার পরিষদের বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের বাধা

51

নাজমুল হোসেন নোয়াখালী সদর উপজেলা প্রতিনিধি ঃ

দেশের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশের নিম্নশ্রেণীর প্রান্তিক মানুষেকে দূর ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বিশেষ করে খেটে-খাওয়া হত-দরিদ্র মানুষেরা বেশি দুর ভোগে পড়েছেন প্রত্যেকের দামি সরকার যেনো অতি তারাতারি এই দ্রব্য মুল্য উর্ধবগতি থেকে স্বাভাবিক অবস্থানে নিয়ে আশে সাথে সাথে মোবাইল কোট মধ্যমে বাজার গুলো নিয়ন্ত্রণ করে।

দ্রব্যমূল্যের ক্রমাগত উর্ধব গতির প্রতিক্রিয়ায় প্রতিবাদে আজ নোয়াখালী জেলা গন অধিকার পরিষদের পূর্ব নিধারিত সময় অনুযায়ী প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ মিছিলের কথা ছিল জেলা টাউন হল মোড়। নিধারিত সময় জেলা গন অধিকার পরিষদ নেত্রাকর্মী গন উপস্থিত হয় টাউন হল মোড় কিন্তু পুলিশ এসে করোনা পরিস্থিতি কারনে কোনো ধরনের সভাসমাবেশ না করতে তাদেরকে জানায় । এতে উভয় পক্ষের মধ্যে কথাপকথান হয় পরে পুলিশের বাধায় নিধারিত স্থানে সমাবেশ না করে তারা চৌমুহনী চৌরাস্তা গিয়ে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে পরে তা গিয়ে শেষ হয় চৌমুহনীতে।

বিক্ষোভ মিছিল শেষে তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে তাদের শান্তিপূর্ণ সভা-সমাবেশ কেনো পুলিশ বাধা দেয়। এই সময় বক্তব্য রাখেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম- সদস্য সচিব আব্দুজ জাহের, যুগ্ম আহবায়ক আবু হানিফ, যুগ্ম আহবায়ক, সাদ্দাম হোসেন সহ দলটির নোয়াখালীর জেলার অনন্য নেত্রকর্মী গন।

তারা বলেন, গণঅধিকার পরিষদ এর জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরকার বাধা দিচ্ছে। জনগণের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে, জনগণ কে সাথে নিয়ে এই অবৈধ সরকারকে পতন ঘটিয়ে ছাড়বো ইনশাল্লাহ। তিনি নোয়াখালীর নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, যেকোনো গণতান্ত্রিক আন্দোলনে আপনারা অগ্রণী ভূমিকা পালন করবেন।

তারা দাবি করে বর্তমান সরকার ব্যর্থ হয়েছে মানুষের অধিকার আদায়ে তারা বলে সরকার মানুষের গনতন্ত্র , কথা বলার অধিকার হরন করছে এখন সরকার মানুষের খাওয়ার অধিকার নষ্ট করার জন্য দ্রব্য মূল্য উর্ধবগতি দেখেও সরকার কোনো চুপ আছে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না সরকার দেশ পরিচালনায় ব্যর্থ বলে দাবি করে।