রামগঞ্জে ১৬দিনেও উদ্ধার হয়নি কিশোরী

28

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ১৬দিনে উদ্ধার হয়নি ফারজানা আক্তার পপি (১৫) নামের এক কিশোরী। ঘটনাটি ঘটেছে ২ ফেব্রুয়ারী বুধবার সন্ধায় উপজেলার ৬নং লামচর ইউনিয়নের দাসপাড়া গ্রামের আভিয়ার বাড়িতে । কিশোরী একই বাড়ির প্রবাসী মোঃ ফয়েজের আহম্মদের মেয়ে। কিশোরী ২০২১ইং সনে উপজেলার মাঝিরগাঁও উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএস পাস করেছে। মেয়েকে কোথাও খুজে না পেয়ে গত ৩ফেব্রুয়ারী মা তাহমিনা বেগম মোহাম্মদিয়া বাজার পুলিশ ফাড়িতে একটি নিখোঁজ ডায়েরী করেছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,উপজেলার লামচর ইউনিয়নের দাসপাড়া গ্রামের দুলুর বাড়ির মুক্তার হোসেন নামের এক ভূয়া কবিরাজের বখাটে ছেলে রাশেদ আলম (২৫) একই গ্রামের আভিয়ার বাড়ির প্রবাসী ফয়েজের মেয়ে পপিকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ২ফেব্রুয়ারী (বুধবার) সন্ধায় বাড়ি থেকে গোপনে তুলে নিয়ে যায়। পরে রাতে মেয়েকে কোথাও খুজে না পেয়ে মা তাহমিনা বেগম পুলিশ ফাড়িতে নিখোঁজ ডায়েরী করেন।
এ ব্যাপারে রাশেদের পিতা কবিরাজ মুক্তার হোসেন জানান, ছেলে কোথায় আছে জানিনা। খুব চিন্তা হচ্ছে ছেলের জন্য। পুলিশ এসে আমাদের পরিবারের লোকজনদের চাপ দিচ্ছে মেয়ে এবং ছেলেকে থানায় উপস্থিত করার জন্য। এখন আমি কবিরাজি করিনা। ফাকে ফাক মানুষ আসলে টুকটাক পানিপড়া ও কাইতন পড়া দেই।
পপির মা তাহমিনা জানান,মেয়ের কোন সন্ধান পাইনি এখনো। রাশেদ তার লম্পট কবিরাজ বাবা মুক্তারের মাধ্যমে তাবিজ কবজ করে আমার মেয়েকে ঘর থেকে বের করে নিয়ে গেছেন।
মোহাম্মদীয়া বাজার পুলিশ ফাড়ির এসআই মাহফুজুর রহমান জানান, মেয়ের পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধারের জন্য কোন অভিযোগ করেননি। তবে একটি নিখোঁজ ডায়েরী করেছেন। এরপরেও পুলিশ ছেলে মেয়েকে উদ্ধার করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।