রাজাপুরে পুলিশ পরিদর্শকের ভবনের ভাড়াটিয়াদের ঘরে দিনদুপুরে গণচুরি,স্বর্ণালংকার ও টাকা লুট

14

মো. নাঈম হাসান ঈমন, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির রাজাপুর সদরের কাঁচা বাজারের ভিতরের পুলিশ পরিদর্শক আফজাল হোসেনের চারতলা ভবন ঝর্ণাম্যানশনের ভাড়াটিয়া সৌদি প্রবাসির বাসায় ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধির অফিসহ চার ফ্লাটের তালা ভেঙ্গে চুরির ঘটনা ঘটেছে। বুধবার সকাল ১০টা থেকে ১১ টার ভিতরে এঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ভবনের চার তলার ভাড়াটিয়া সৌদি প্রবাসি মনির হোসেনের স্ত্রী লাকি বেগম জানান, সকাল সারে নয়টার দিকে তার দড়জায় তালা লাগিয় তার মেয়েকে নিয়ে প্রাইভেট পরাতে যান। ১১টার দিকে বাসায় এসে দড়জার হ্যাজভোল্ট ভাঙ্গা দেখতে পান। ঘরে প্রবেস করে আলমিরা ও সুকেজের বিভিন্ন ড্রয়ার ভাঙ্গা পান এবং চোরেরা তার ঘরে থাকা স্বর্ণের চেইন ১টি, আংটি ১টি, কানের বালা ১জোড়া, রুপার নুপুর ১জোড়া, ছোট মোবাইল সেট ১টি ও পাঁচ হাজার টাকা নিয়ে গেছে। একই সময় ওই ভবনের তিন তলার ভাড়াটিয়া সৌদি প্রবাসি মাসুম খান জানান, সকাল ১০টার দিকে তারা স্বামী-স্ত্রী ঘরে তালা লাগিয়ে ব্যাংকে যান। ঘরে ফিরে দেখেন চোরেরা ঘরের দড়জা ভেঙ্গে ড্রয়ার থেকে পঞ্চাশ হাজার টাকা,স্বর্ণের কানের বালা ১জোড়া ও সৌদির কিছু রিয়াল নিয়ে গেছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি মো: আল আমিন হোসেন জানান, ওই ভবনের দুই তলায় তার অফিস রয়েছে। ঘটনার সময় অফিসে তালা দেয়া ছিলো। চোরেরা তালা ভেঙ্গে আলমারি ও টেবিলের ড্রয়ার ভেঙ্গে কাগজপত্র এলোমেলো করে। দামি কিছু না থাকায় কিছু খোয়া যায়নি। অপর দিকে ওই ভবনের চার তলার অপর ফ্লাটের সৌদি প্রবাসি জাহিদের স্ত্রী পপিকে দড়জার বাহির থেকে হ্যাজভোল্ট আটকে রাখে চোরেরা ও তিন তলার দুবাই প্রবাসি জায়েদ খানের ছেলে সুজন খানকেও বাহির থেকে দড়জার ছিটকানি আটকে রাখে চোরেরা। তারা কিছু বুঝে ওঠার আগেই চোরেরা সটকে পড়ে। চুরির ঘটনার সময় ওই ভবনের নিচে কাঁচা বাজারের কেনা বিক্রি চলছিলো। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছে। এ বিষয় রাজাপুর থানার এএসআই সঞ্জিব বলেন, ভুক্তভোগীরা যেভাবে সহায়তা চান সেভাবে সহায়তা দেয়া হবে। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন ক্লু পাওয়া যায়নি বলে তিনি জানান। রাজাপুর থানার ওসি ছুটিতে আছে এবং ওসি তদন্ত ঢাকায় রয়েছে।