কালিগঞ্জে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে দুই গৃহবধূকে কুপিয়ে জখম

কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি:সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে
জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরধরে দুই গৃহবধূকে কুপিয়ে গুরুতর জখমের অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় ভুক্তভোগী উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের দুদলী গ্রামের শেখ শামছুর রহমানের ছেলে শেখ আজগার আলী (৩৫) থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রতনপুর ইউনিয়নের মহিষকুড় মসজিদবাটি গ্রামের মৃত শেখ মোসলেম আলীর ছেলে শেখ জিন্নাত আলী’র (৫৮) সাথে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরধরে ভুক্তভোগী আজগার আলীর বিরোধ চলে আসছিলো।
এরই সূত্রধরে গত ১৬জুন বিকেলে জিন্নাত আলী তার ছেলে জিয়াউর রহমানসহ ৩/৪ জন দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে ভুক্তভোগী আজগার আলীর জমিতে কলা গাছ রোপন করে জমি দখলের চেষ্টা করে।
ওই সময়ে আজগার আলীর স্ত্রী তাছলিমা বেগম (২৫) তাদেরকে নিষেধ করলে জিন্নাতগং তাকে এলোপাতাড়ি মারপিটসহ কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এছাড়া গৃহবধূর গলা চেপে শ্বাসরোধের চেষ্টা চালায় ও শ্লীলতাহানি ঘটায়।
গৃহবধূর চিৎকারে আজগার আলীর বড় ভাবি নুর নাহার (৩৫) এগিয়ে আসলে তাকেও মারপিটসহ গুরুতর জখম করে জিন্নাতগং। পরবর্তীতে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় দুই নারীকে দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। বর্তমানে তারা সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এদিকে অভিযুক্ত জিন্নাত আলীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ওই জমিতে আমরা দীর্ঘদিন যাবত ঘের করে আসছি। জমিতে গাছ লাগানোকে কেন্দ্র করে দুইপক্ষের মধ্যে বাক্ বিতন্ডা ও হালকা মারামারি হয়। মারামারিতে আহত হয়ে আমিসহ আমার ছেলে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছি।
থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান জানান, এঘটনায় উভয় পক্ষের দু’টি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।