ডুমুরিয়ার খর্ণিয়ায় পেয়ারা চাষে স্বাবলম্বী “মাসুদুল ইসলাম”

23

রাশিদুজ্জামান সরদার ডুমুরিয়া খুলনা প্রতিনিধিঃ ডুমুরিয়া উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নের কৃষকরা কৃষি কাজ করে স্বাবলম্বী হচ্ছেন, অনেকে চাকরি ছেড়ে দিয়ে কৃষি কাজ করছেন, তেমনই একজন কৃষকের খোঁজ পাওয়া যায় ডুমুরিয়া উপজেলা খর্নিয়া গ্রামে কৃষক মাসুদুল ইসলাম ,তিনি অলিম্পিক কোম্পানির চাকরি ছেড়ে দিয়ে তার আত্মীয় সাথে পরামর্শ করে বিষমুক্ত পেয়ারা চাষ শুরু করেন পেয়ারা পলি বাধার মধ্য দিয়ে তার জমিতে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ডুমুরিয়া উপজেলার খর্নিয়া গ্রামে ১৮শতক জমিতে পেয়ারা চাষ করেছেন সাথী ফসল হিসেবে মাল্টা ও লেবু লাগিয়েছেন তিনি। আঠার ১৮শতক জমিতে পেয়ারা চাষ করতে খরচ হয়েছে তার ২৫ হাজার টাকা, তিনি ১বছরে বিক্রি করেছেন ২৫হাজার টাকা, তিনি বলেন প্রতি বছর ৩০হাজার টাকার পেয়ারা বিক্রি করতে পারবেন ।একবার লাগানোর পর চার বছর পর্যন্ত তিনি ফল পাবেন। তিনি বলেন বিষমুক্ত পেয়ারা কিভাবে লাগানো যায় তার জন্য ডুমুরিয়ার কৃষি অফিসার মোসাদ্দেকের কাছে পরামর্শ চাইলে তিনি আমাকে পলি বান্ধার কথা বলেন, তার পরামর্শে আমি পলি বেঁধে পেয়ারা চাষ করছি, একই গ্রামের আর একজন কৃষক দিদার হোসেন , তিনি চায়না থাই গোল্ডেন এইট, বিষমুক্ত পেয়ারা পলি বেঁধে চাষ করেছেন এক বিঘা জমিতে। তিনি বলেন এক বিঘা জমিতে ৩০০পিস পেয়ারা চারা তিনি রোপন করেছেন, পেয়ারা চারা রোপন করতে তার খরচ হয়েছে ৪০হাজার টাকা, রোপণের ৪মাস পর পেহারা ধরতে শুরু করে তিনি প্রথম মাসে ২মন পেয়ারা বিক্রি করেছেন, ২মাস পর থেকে ৪মন করে পেয়ারা বিক্রি করছেন। ১কেজি পেয়ারা তিনি বিক্রি করছেন ৪০টাকা কেজি দরে, ১মন বিক্রি করছেন ১৬শ’টাকা এভাবে তিনি একবার পেয়ারা গাছ লাগিয়ে চার বছর পেয়ারা বিক্রি করবেন।ডুমুরিয়া কৃষি কর্মকর্তা মোসাদ্দেক হোসেন বলেন পেয়ার চাষ একটি লাভজনক ফসল, এক বিঘা জমিতে ৪০০টি পেয়ারা গাছ লাগানো যায়, একটি পেয়ারা গাছে এক বছরে ২০কেজি পর্যন্ত পেয়ারা হয় ,একমন পেয়ারা বাজারে পাইকারি বিক্রি হচ্ছে১৪শ টাকা, একটি গাছে ৩ হাজার টাকার পেয়ার ১বছরে বিক্রি করতে পারে কৃষকরা । আমরা ডুমুরিয়া উপজেলার কৃষকদের পেয়ারা চাষিদের জমিতে পরিদর্শন দিয়েছি ,ও প্রশিক্ষণ দিচ্ছি কিভাবে তারা বিষমুক্ত পলি বেঁধে পেয়ারা চাষ করতে পারে।ও গাছের ভিতরে সাথী ফসল হিসেবে লেবু, মালটাসহ অন্যান্য ফসল তাদের জমিতে আধুনিক পদ্ধতিতে কিভাবে ফসল উৎপাদন করতে পারে ।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •