খুলনায় শেখ পরিবারের অক্সিজেন ব্যাংক ও অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের সেবা অব্যাহত

0

চন্দন ভট্টাচার্য্য…..

করোনা খুলনায় হটস্পটে পরিনত হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। মৃত্যুর মিছিল ও পারদের মতো ওঠানামা করছে। করোনা ভাইরাসের ভারতীয় ডেল্টা ভেরিয়েন্ট প্রাদুর্ভাব ঘটলে খুলনার হাসপাতাল ও অক্সিজেন ব্যাংকগুলো অক্সিজেন সেবা দিতে যখন রীতিমত হিমসিম খাচ্ছে তখন খুলনাবাসীর পাশে দাঁড়িয়ে বিরামহীনভাবে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা ও অ্যাম্বুলেন্স সেবা দিয়ে নগরবাসীর আস্থা ও ভালবাসায় স্থান করে নিয়েছে শহীদ শেখ আবু নাসের অক্সিজেন ব্যাংক, সেখ জুয়েল ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস ও শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক। খুলনা ২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল ২ টি অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্হা করেছেন নগরবাসীর সেবা দেওয়ার জন্য। খুলনা মহানগরীর রোগীদের বিনামূল্যে অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস দিচ্ছেন। অপরদিকে করোনা রোগীদের অক্সিজেন সেবা দিতে বিসিবির পরিচালক শেখ সোহেল চালু করেছেন শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক। প্রায় ২০০টি অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে দিন রাত ২৪ ঘন্টা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন খুলনা নগরবাসীর। মহানগরীর যে কোন প্রান্তে থেকে যে কেউ হটলাইন নম্বরে যোগাযোগ করলেই তার ঠিকানায় তাৎক্ষনিকভাবে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা পৌছে যাচ্ছে।একাজে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের একদল পরিশ্রমী নেতাকর্মী।
সকাল থেকে রাত অবধি বিভিন্ন সময়ের অক্সিজেন সেবা ও অ্যাম্বুলেন্স সেবার কন্টোল রুমে অবস্থান করে সর্বিক বিষয়ে তত্বাবধান করছেন খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মুন্সি মাহাবুব আলম সোহাগ, মহানগর আওয়ামী লীগ সদস্য মনিরুজ্জামান সাগর, এসএম আকিল উদ্দীন, সাবেক ছাত্রনেতা অসিত বরণ বিশ্বাস, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক সফিকুর রহমান পলাশ, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান চৌধুরি মোঃ রায়হান ফরিদ, সাবেক ছাত্রনেতা শেখ মোঃ আবু হানিফ, মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রাসেল, মহানগর যুবলীগের সদস্য মোস্তফা শিকদার, মশিউর রহমান সুমন প্রমুখ।

এছাড়া করোনা আক্রান্ত রোগীদের ২৪ ঘণ্টা পরামর্শ দেওয়ার জন্য খোলা হয়েছে টেলিমেডিসিন সেবা। ০১৮১৮-৯৫৮৯৫৭ নম্বরে ফোন করলেই পাওয়া যাবে পরামর্শ।

বড় খালপাড় মুজাহিদ পাড়া ৩ য় গলির অসুস্থ হুমায়ুন কবিরের এক আত্মীয় বলেন, রাত ১০ঃ৩০ টার সময়ে আমরা যখন অক্সিজেনের জন্য বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ করে কোন সদুত্তর পাচ্ছিলাম না, ঠিক সেই মূহুর্তে আমাদের এক আত্মীয় শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংকে যোগাযোগ করলে অতি দ্রুত সময়ে সেচ্ছাসেবকরা এসে আমাদের বিনামূল্যে সেবা প্রদান করে।আমরা উনাদের সেবায় খুব খুশি আমরা শেখ পরিবারের প্রতি কৃতজ্ঞ।
মহান আল্লাহর কাছে দোয়া করি, আল্লাহ শেখ পরিবারের সকল সদস্যদের দীর্ঘায়ু দান করেন।

হাজি মহসিন রোডের অসুস্হ মাহফুজা বেগমের আত্মীয় বলেন, আমরা শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংকের সেবা পেয়ে অত্যন্ত খুশি। সেচ্ছাসেবকরা ও খুব আন্তরিক। উনাদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় অসংখ্য রোগীরা মৃত্যুর দুয়ার থেকে ফিরছে।আমরা শেখ পরিবারের প্রতি কৃতজ্ঞ। মহান আল্লাহর কাছে উনাদের দীর্ঘায়ু কামনা করি।

স্বেচ্ছাসেবক ও বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্রপরিষদ সিটি ল” কলেজের সাধারণ সম্পাদক মো:রফিকুল ইসলাম বলেন, খুলনাবাসীর জন্য একটা সময় উপযোগী সেবা। এই সেবাটার মাধ্যমে সমাজের সব শ্রেণীর মানুষ উপকৃত হচ্ছেন। খুলনার মানুষ স্বাধীনতার সময় থেকে আজ পর্যন্ত যত বড় বিপদের সম্মুখীন হয়েছে তখন ই শেখ পরিবার মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। এই সেবা কার্যক্রমে অংশগ্রহন করতে পেরে আমি গর্বিত।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •