২০১৯ সাল থেকে মুমূর্ষু রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছে “বাঘারপাড়া ব্লাড ব্যাংক”

64

মেহেদী হাসান রিপন,স্টাফ রিপোর্টারঃ-

,রক্তে মাংসে গড়া দেহে থাকিতে মোদের প্রাণ,
একবার নয় বার বার মোরা করিব রক্তদান
‘’ স্লোগানকে ধারণ করে ২০১৯ সালে যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলায় গড়ে উঠে ‘বাঘারপাড়া ব্লাড ব্যাংক’ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। প্রায় সাড়ে আট হাজার সদস্যের এই সংগঠন প্রতিষ্ঠা থেকে শুরু করে এ যাবৎ অগণিত মুমূর্ষু রোগীর পাশে দাঁড়িয়েছে। রক্তের প্রয়োজন মিটিয়ে তারা মানবসেবার এক উজ্বলতম দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। মানবতাবাদী এই সংগঠন ২০১৯ সাল থেকে পুরোদমে অনলাইন মাধ্যমে সদস্য সংগ্রহ ও রক্তের প্রয়োজনে তাদের কার্যক্রম শুরু করে।

রক্তগ্রহীতার আত্বীয়-স্বজন অনলাইনে রক্তের প্রয়োজনে নির্দিষ্ট তথ্য দিয়ে পোস্ট করার পরপরই সংগঠনের নিবেদিত প্রাণ- শেখ আশিক, আর জে রায়হান, ইয়াসিন আরাফাত, নাঈম, নাফিজ,নিরব অধিকারী, সোহাগ বিশ্বাস,সানি,ফাইম,নাসিম রেজা,শামিম,আব্দল্লাহ,রায়হান হোসেন,পারভেজ,শামিমা,সুরাইয়া ইথার,মিহির,রাজিউল ইসলাম, তরিকুল,তুষার ইমরান সহ এলাকার অনেক তরুণ-তরুনী রক্ত সংগ্রহের জন্য রক্তদাতাদের সাথে যোগাযোগ করে অতি দ্রুত মুমূর্ষু রোগীর জন্য বিনামূল্যে রক্তের ব্যবস্থা করে দেয়।

আর্তমানবতার সেবায় নিয়োজিত এই সংগঠনের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা মোঃ সৈয়দ হাসিবুল ইসলাম বলেন, রক্তের প্রয়োজনে একটা সময় মানুষ অসহায় বোধ করতো। কোনো এক অজানা ভীতির কারণে অনেকেই রক্তদানে তেমন উৎসাহ পেতো না। ফলে রক্তের প্রয়োজন মেটাতে রোগীর স্বজনদের ভয়ানক বিড়ম্বনা পোহাতে হতো। অনেক সময় রক্ত জোগাড় করতে বিলম্ব হওয়ার কারণে রোগীর জীবন প্রদীপ নিভে যেতো। তাছাড়া অনেক কষ্টেও যখন রক্ত পাওয়া যেত না তখন বিভিন্ন ব্লাড ব্যাংক থেকে কেনা রক্তই একমাত্র ভরসা ছিল। যা অধিকাংশ ক্ষেত্রে রোগীর জন্য নিরাপদ হতো না।

তিনি আরও বলেন, কেউ যেন চিকিৎসাধীন অবস্থায় রক্তের অভাবে প্রাণ না হারান সেই উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের জন্যই সংগঠনটি যাত্রা শুরু করে।ইতোমধ্যে সংগঠনটি রক্তদানের পাশাপাশি বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়, দুর্যোগকালীন ত্রাণ ও শীত বস্ত্র বিতরণ, সামাজিক সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইনসহ বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক কর্মকান্ডের জন্য বাঘারপাড়ার গণমানুষের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

ভবিষ্যতে এই কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে ও আরও বেশি সংখ্যক মানুষকে সেবার আওতায় আনতে সচেতন সমাজের প্রতি আহবান জানিয়েছেন সংগঠনটির সদস্যরা

নিউজটি শেয়ার করুন...