আড়াইহাজারে ডাকাত পুলিশের মধ্যে-গুলাগুলি, পুলিশসহ আহত ৫

0

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় ডাকাত-পুলিশের মধ্যে গুলাগুলির ঘটনা ঘটেছে । এ সময় এক পুলিশ গুলিবিদ্বসহ আহত হয়েছে ৫ জন। গত মঙ্গলবার (৩১ আগষ্ট) দিবাগত রাত পৌনে এক টায় উপজেলার গোপালদী বাজারে এই ঘটনা ঘটে।
আহতদের মধ্যে গোপালদী তদন্ত কেন্দ্রের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) সোহরাব হোসেন (৩৫) ডাকাতের গুলিতে গুলিবিদ্ধ, ডাকাতের দায়ের কোপে আহত দোকানের কর্মচারী রাজু (২০), কুদ্দুস ( ১৫), সুধাচন্দ্র দাস (২৫) ও বলাই চন্দ্র (৫০) কে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। আহত পুলিশকে ঢাকা মেডিকেল চিকিৎসা শেষে বাসায় নিয়ে আসা হয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষ দর্শনার্থীদের জানান, রাত পৌনে এক টার দিকে বাজারের প্রায় সকল দোকান পাট বন্ধ ছিল। এরই মধ্যে ৩টি স্বর্ণের দোকানের ভেতরে বসে দোকানের কর্মচারীরা কাজ করছিল। ঘটনার সময় স্পীডবোট ও ট্রলার দিয়ে ২০/২৫ জন মুখোশ পরিহিত ডাকাতদল এক সাথে ৩টি দোকানে হানা দেয়। এ সময় খবর পেয়ে গোপালদী বাজারের ডিউটিরত পুলিশ ঘটনাস্থলে হাজির হয়। ডাকাতদল পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি শুরু করে। পুলিশও পাল্টা গুলি করে। ৫/৭ মিনিট চলে ডাকাত-পুলিশ গুলিবিনিময়। এই খবর চার দিকে ছড়িয়ে পড়লে থানার ওসি আনিচুর রহমান মোল্লার নেতৃত্বে আশে-পাশের সকল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে ডাকাতদল বাজারের বিপ্লব বিশ্বাস, বলাই সরকার ও আমির হোসেনের দোকান থেকে ১৪ ভরি স্বর্ণ ও ১ লাখ ২০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। গোপালদী বাজার বনিক সমিতির সভাপতি জাকির হোসেন মোল্লা বলেন, সময় মত পুলিশ না আসলে আরো বড় ধরণের ঘটনা ঘটতে পারতো।
আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান মোল্লা বলেন, খবর পেয়ে আমরা বাজারের চারদিকে ঘিরে ফেলি। তাই বড় ধরণের কোন বিপদ হয়নি। তিনি আরো বলেন, ডাকাতের সাথে গুলিবিনিময় করার সময় ১৭ রাউন্ড গুলি করতে হয়েছে। ডাকাত গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান শুরু হয়েছে । এই ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •