কালিয়াকৈরে ইউপি সদস্যর বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে হয়রানির অভিযোগ

0

স্টাফ রিপোর্টার:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে লকডাউন পালনের নামে সাধারণ মানুষকে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। ওই ইউপি সদস্য বুলবুল আহম্মেদ উপজেলার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের মেম্বার। স্থানীয়দের অভিযোগে জানা যায়, সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউন পালনের নামে মধ্যপাড়া ইউনয়নের শোলহাটি এলাকায় মকস বিলের কয়েকটি বিনোদন কেন্দ্র ও দোকানপাট গুলোতে মানুষের ভীড় থাকে। মানুষের যাতায়াত বন্ধ করার জন্য কয়েকজন গ্রাম পুলিশ আর লাঠিসোঠা নিয়ে টহলে বসেন স্থানীয় মেম্বার বুলবুল। তবে মানুষের চলাচল বন্ধের নামে তারা ওই এলাকায় আধিপত্য বিস্তার করছেন বলে অভিযোগ করেন স্থানীয় সাধারণ মানুষ। প্রয়োজনীয় কাজে ওই সড়ক ধরে চলাচল গত লোকজনকে নানা ভাবে হয়রানি করা হয়। অনেকেই আবার লাঠির আঘাতের স্বীকার হয়েছেন। জরুরী।প্রয়োজনে খোলা দোকান গুলোতেও গ্রাম পুলিশ দিয়ে হয়রানি করা হয় বলে জানান দোকান মালিকরা। স্থানীয় লোকজন জানান, ঈদের সময় মকস বিলে লোকজন আসে। কিন্তু লকডাউনের জন্য তেমন আসছে না। এছাড়া থানা পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন সর্বদা এদিকে নজরদারি করছেন। তবুও স্থানীয় মেম্বার গ্রাম পুলিশ নিয়ে সাধারণ মানুষকে নানা ভাবে হয়রানি করে যাচ্ছে। সফিক নামের এক পথচারী জানান, জরুরী প্রয়োজনে কাজে যাচ্ছি , এসময় ওই এলাকায় আমার বাইক থামিয়ে আমাকে হয়রানি করা হয়েছে। আল আমীন নামের এক পথচারী জানান,এটা গ্রাম অঞ্চল এখানে বিকেল হলে স্থানীয় লোকজন একটু আসবেই। লকডাউনের কারণে মানুষ তেমন আসছে না। পুলিশ সবসময় ডিউটি করছে । কিন্তু এরা এই এলাকায় আধিপত্য বিস্তার করে সাধারণ মানুষকে নানা ভাবে হয়রানি করছে। এ বিষয়ে ওই ইউপি সদস্য বুলবুল আহম্মেদ জানান, আমরা ইউএনও স্যারের কাছে থেকে অনুমতি নিয়েছি। স্থানীয় চেয়ারম্যানও আমাদের সঙ্গে আছেন। কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ জানান, এই বিষয়টি আমাদের জানা নেই। সাধারণ মানুষকে হয়রানি করা টা অন্যায়। আমরা অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •