বিমানবন্দরে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ গ্রেফতার ২

15

নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা

রাজধানীর বিমানবন্দর থানা এলাকা হতে ৩৭,৩৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ০২ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১।

গ্রেফতারকৃতরা হলো,মো.নূর আবছার (২৭) ও নূর মোহাম্মদ সাকিব (২৩)।

বুধবার ২২ জুন সকালে র‍্যাব-১ এর সহকারী পুলিশ সুপার ( মিডিয়া) নোমান আহমদ এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

র‍্যাব জানান,মাদক কারবারীরা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিতে প্রতিনিয়ত অভিনব কৌশল অবলম্বন করে আসছে। চলমান মাদক বিরোধী অভিযানের ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১ গোয়েন্দা তথ্যের মাধ্যমে জানতে পারে যে,একটি সংঘবদ্ধ চক্র মাদকদ্রব্য ইয়াবার বড় একটি চালান নিয়ে রাজধানীর বিমানবন্দর থানা এলাকায় অবস্থান করছে। র‌্যাব সদর দপ্তরের গোয়েন্দা শাখার সহায়তায় র‌্যাব-১ এর একটি আভিযানিক দল এই মাদকবাহী চক্রের অনুসন্ধান শুরু করে।

তিনি বলেন,এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার ( ২১ জুন) র‌্যাব-১ এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তি জানতে পারে যে,কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী ডিএমপি, বিমানবন্দর থানা এলাকায় অবস্থান করছে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯ টায় ডিএমপি,ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থানাধীন ময়মনসিংহ টু ঢাকা মহাসড়কের পূর্ব পাশে বিমানবন্দর রেলওয়ে ষ্টেশন সংলগ্ন বিক্রমপুর ট্রায়ার দোকানের সামনে পাকা রাস্তার উপর অভিযান পরিচালনা করে দুইজন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ৩৭,৩৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট (আনুমানিক মূল্য ১,১২,০৫,০০০/- এক কোটি বার লক্ষ পাঁচ হাজার টাকা) এবং ০২ টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন,আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা একটি সংঘবদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা দেশের বিভিন্ন জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা হতে চোরাচালানের মাধ্যমে ইয়াবার চালান রাজাধানীর ঢাকায় নিয়ে আসে। পরবর্তীতে ইয়াবার চালানগুলো আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে মাদক ব্যবসায়ীদের নিকট সরবরাহ করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানা যায়,তারা পেশায় শ্রমজীবী। তারা ইতিপূর্বে ০৮/১০ টি ইয়াবার চালান বিভিন্ন উপায়ে রাজধানী ঢাকাসহ আশপাশের জেলাসমূহে সরবরাহ করেছে বলে স্বীকার করে।

আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।