চুরির অভিযোগে সংঘবদ্ধ চোর চক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার

10

মোঃ দীন ইসলামঃ

রাজধানীর পল্লবী থানার ১২ নাম্বার ডি-ব্লকে ‘তাজিন বাংলাদেশ’ নামের অফিসের তালা ভেঙ্গে ব্যবসায়ীক মালামাল চুরির অভিযোগে সংঘবদ্ধ একটি চক্রেরের ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পল্লবী থানা পুলিশ। শনিবার (২ অক্টোবর ) মিরপুর ১২ নাম্বার কালাপানি বেগুনটিলা বস্তি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- ১২ নাম্বার ডি- ব্লকের নাসিরের ছেলে ইসমাইল (২৩) ও ঝালকাঠির চিলাখালি গ্রামের মাইনুদ্দিন এর ছেলে রাসেল (২২)। এ সময় তাদের কাছে থেকে চুরি হওয়া ৯টি জামদানি শাড়ি, ৮টি জামদানি ওড়না, ৩টি সিল্ক শাড়ি, ১২টি স্টিচ পাঞ্জাবি, ৪টি প্রাকৃতিক রংয়ের সুতি শাড়ি, ১টি বাটিক শাড়ি, ৬টি ব্লকের শাড়ি, ৩টি তাঁতের সুতি শাড়ি, ৩টি প্রিন্টের সুতি শাড়ি, ১টি আইপি ক্যামেরা। যার সর্বমোট বাজার মূল্য রয়েছে, ৩,০০,৯২০ (৩ লক্ষ ৯২০) টাকা।
উদ্ধার করা হয়

পল্লবী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) পারভেজ ইসলাম এর নির্দেশে এস.আই কাউছার মাহমুদ এর নেতৃত্বে কালাপানি বেগুনটিলা বস্তিতে ১ঘন্টা অভিযান চালিয়ে সংঘবদ্ধ চোর দলের ২ সদস্য ও চুরিকৃত মালামাল উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

গ্রেফতারের বিষয়ে এস.আই কাউছার মাহমুদ এর সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তাজনিন তানিয়া (৩০) নামের এক ভদ্রমহিলার ‘তানিজ বাংলাদেশ’ নামের অফিসের তালা ভেঙ্গে প্রায় ৩,০০,৯২০ (৩ লক্ষ ৯২০) টাকার মালামাল চুরি হয়েছে বলে পল্লবী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। পরবর্তীতে সেই মামলার তদন্তের দায়িত্ব আমাকে দেয়া হলে, আমি আশেপাশের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে ঐ দুইজন চোরকে শনাক্ত করি। পরবর্তীতে কালাপানি বেগুনটিলা বস্তিতে ১ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে সংঘবদ্ধ চোর দলের ২ সদস্য ও চুরিকৃত মালামাল উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, বেশ কিছুদিন যাবৎ পল্লবীর বিভিন্ন এলাকায় এভাবেই চুরি করে আসছিল তারা। তিনি আরো বলেন, চোরচক্র ধরতে আমাদের এরকম অভিযান অব্যাহত থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •