কিশোর গ্যাং ভাইব্বা ল কিং (Vaibba Lo King) গ্যাং লিডার মোহনসহ গ্রেফতার ৯

15

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকায় কিশোর গ্যাং ভাইব্বা ল কিং (Vaibba Lo King) এর গ্যাং লিডার মোহনসহ ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে মোহাম্মদপুরের ঢাকা উদ্যান ও বসিলায় বেশ কয়েকটি ছিনতাই, চাঁদাবাজি ও অন্যান্য সন্ত্রাসী কর্মকান্ড সম্পর্কে তথ্য পায় র‌্যাব। র‌্যাবের টহল ও গোয়েন্দা কার্যক্রম বৃদ্ধি করা হয়। গত রাতে টহলরত র‌্যাব-২ এর সদস্যরা মোহাম্মদপুরের ঢাকা উদ্যানে একটি ছিনতাইয়ের ঘটনা সম্পর্কে তথ্য পায়। তৎক্ষণাৎ কর্তব্যরত টহল দল ঘটনাস্থল হতে তথ্য সংগ্রহ পূর্বক অভিযানে নামে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত সোমবার ( ২২ নভেম্বর) সাড়ে নয়টায় মোহাম্মদপুরের রায়েরবাজার বুদ্ধিজীবী কবরস্থান এলাকায় অভিযান ছিনতাইকারী মো. নাঈম (১৪) মো. রুমান (১৮), মো. তামিম খাঁন (১৪), (৪) মো. সজীব (১৭) কে ঢাকা’দেরকে ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র, পিস্তল সদৃশ্য ও মাদকসহ গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা জানায় যে, তারা “ভাইব্বা ল কিং (ঠধরননধ খড় করহম)” নামক একটি সংঘবদ্ধ গ্রুপের সদস্য। অতঃপর তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল মধ্যরাতে চাঁদ উদ্যান সংশ্লিষ্ট সাত মসজিদ হাউজিং এলাকায় অভিযান চালিয়ে দলের গ্যাং লিডার শরীফ ওরফে মোহন (১৮), মো. উদয় (১৯), মো. শাকিল (১৯), মো. নয়ন (১৮) ও মো. জাহিদ (১৮) কে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ৪টি লোহার দেশীয় তৈরী ছুরি, ১টি স্টিলের হাতলযুক্ত কুঠার, গাঁজা ৫০ পুরিয়া, ২টি স্টীলের তৈরি ছোরা, ১টি স্টীলের তৈরি হোল্ডিং চাকু, ১টি প্লাষ্টিকের পিস্তল সদৃশ্য, ৬৫ পিস ইয়াবা ও ইয়াবা খাওয়ার সরঞ্জামাদিসহ ৩টি মোবাইল জব্দ করা হয়।

এ বিষয় মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন জানান, গ্রেফতারকৃতরা জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, তাদের কিশোর গ্যাং ভাইব্বা ল কিং (Vaibba Lo King) গ্রুপে প্রায় ১৫-২০ জন সদস্য রয়েছে। উক্ত দলের রিং লিডার মোহন এর নেতৃত্বে বিগত ২/৩ বছর পূর্বে গ্যাং টি গঠন করা হয়। এরা মোহন সিন্ডিকেট নামেও পরিচিত। এই গ্রুপের সদস্যরা পূর্বে লেবেল হাই গ্যাং এ অন্তভূক্ত ছিল। অন্তকোন্দলে যা ৫/৬টি গ্রুপের বিভক্ত হয়ে যায়। গ্রুপটির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, টিকটক ইত্যাদি ফুটপ্রিন্ট রয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের গ্যাং সংক্রান্ত বিভিন্ন উদ্ধত্যপূর্ণ প্রচারণা পাওয়া যায় যেমন মোহাম্মপুরের পোলাপান যা করি তা টোকেন ছাড়াই ওপেন, মোহাম্মদপুরের পোলা বাজান/আমি একাই একশ/গেঞ্জাম করার আগে Vaibba Loiyo ইত্যাদি। মোহাম্মদপুর এলাকায় চাঁদাবাজী, সন্ত্রাসী কার্যক্রম, চুরি-ডাকাতি আধিপত্য বিস্তার করে আসছে। তারা ভাড়ায় বিভিন্ন স্থানে হুমকি ও মারপিটে অংশগ্রহণ করে। এছাড়া ইভটিজিংসহ বিভিন্ন অসামাজিক কার্যক্রমের সাথে জড়িত।

র‍্যাব আরো জানায়, গ্রেফতারকৃতরা ভাইব্বা ল কিং (Vaibba Lo King) মানে তাদের সদস্যদের যেই অবস্থায় থাকুক না কেন তারা মোহাম্মদপুরের কিং। অপরাধ কার্যক্রমের মাধ্যমে তারা নিজেদেরকে কিং হিসেবে উপস্থাপন করতে চায়। গ্রেফতারকৃতরা লেগুনা, অটোচালনা, দোকানের কর্মচারী, নির্মাণকর্মী ও অফিসের বার্তাবাহক ইত্যাদি পেশায় থাকলেও তারা মূলত মোহাম্মদপুর এলাকায় ছিনতাই ও চাঁদাবাজির সাথে জড়িত। তারা বিভিন্ন সময়ে ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে ব্যাংকের আশেপাশে যেয়ে গ্রাহকদের টার্গেট করত বলে জানায়।

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

নিউজটি শেয়ার করুন...