আন্তর্জাতিক মানব পাচারকারী চক্রের ১ সদস্য গ্রেফতার

18

মো. দীন ইসলামঃ

র‌্যাব-১ এর অভিযানে রাজধানীর পল্টন থেকে আন্তর্জাতিক মানব পাচারকারী চক্রের ১ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এবং ১ জন নারীসহ ৩ জন পুরুষকে উদ্ধার করেছে র‍্যাব-১। গ্রেফতারকৃত হলেন মো. শামসুদ্দিন (৬১)।

বর্তমানে দেশে মানব পাচারের মত ঘৃন্যতম অপরাধ থেমে নেই। মানব পাচারকারী চক্রের টার্গেট দরিদ্র মানুষ। পাচারকারীরা বিদেশে চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে সহজ সরল এই মানুষগুলোকে ফাঁদে ফেলে নিয়ে যাচ্ছে অন্ধকার জগতে। পাচারকারীদের পাতা জালে জড়িয়ে অবৈধ পথে বিদেশ পাড়ি দিতে গিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিচ্ছে এসব মানুষ। যার অধিকাংশই নারী। এসকল নারীদেরকে বিদেশে লোভনীয় ও আকর্ষণীয় বিভিন্ন পেশায় চাকুরীর কথা বলা হলেও তাদেরকে বিক্রি করে দেওয়া হয় এবং জোরপূর্বক সম্পৃক্ত করা হয় ডিজে পার্টি, দেহ ব্যবসাসহ বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকান্ডে।

এই পর্যন্ত র‌্যাব-১ আন্তর্জাতিক মানব পাচারকারী চক্রের বিদেশী নাগরিকসহ অসংখ্য মানব পাচারকারী চক্রের সদস্যকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে সক্ষম হয়েছে। এসকল মানব পাচারকারী চক্রের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১ গোয়েন্দা নজরদারী অব্যাহত রাখে এবং সম্প্রতি রাজধানীসহ বেশ কিছু এলাকায় মানব পাচারকারী চক্রের তথ্য পাওয়া যায়।

এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার ( ২২ নভেম্বর) রাতে র‌্যাব-১, উত্তরা, ঢাকা এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডিএমপির পল্টন থানা এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে একজনকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ২ টি মোবাইল, একাধিক ব্যক্তির পাসপোর্ট, ১ টি বিএমইটি কার্ড, ১ জন নারীসহ ৩ জন পুরুষকে উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয় সোমবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

র‍্যাব-১ এর অধিনায়ক আব্দুল আল মমিন জানান, আসামীকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, বর্তমানে দুবাই এ অবস্থানরত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন (৩৭), জেলা- ফেনী এর পরিকল্পনা ও নেতৃত্বে এই ঘৃণ্য অপরাধ সংঘঠিত হচ্ছে। জিয়ার সাথে বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গের যোগসাজসের প্রমাণ পাওয়া গেছে। বিভিন্ন কোম্পানী ও গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীতে চাকুরী দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এই প্রতারক চক্র মেয়েদেরকে বিদেশ গমনে প্রলুব্ধ করে এবং কোন তরুনী বিদেশ গমনে রাজী না হলে বহুবিধ হুমকি প্রদান করে। এছাড়াও এই মানব পাচারকারী চক্র প্রবাসে গমনে ইচ্ছুক বহুবিধ পুরুষ ভিকটিম হতে বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাৎ করেছে।

র‍্যাব আরো জানায়, আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানা যায় অদ্যবধি শতাধিক নারীকে ভাবে বিদেশ পাচার করেছে। র‌্যাব এই দুর্ভাগা নারীদেরকে উদ্ধারে এবং অন্যান্য অপরাধীদেরকে গ্রেফতারে সচেষ্ট রয়েছে।

গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

নিউজটি শেয়ার করুন...