সেনবাগে সাব-রেজিস্ট্রারের নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে দলিল লিখক সমিতির কর্মবিরতি শুরু

মোঃ ইব্রাহিম নোয়াখালী প্রতিনিধি :
নোয়াখালীর সেনবাগে সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের অনিয়ম, দলিল সম্পাদনে অসদাচরণ, ঘুষ দাবি, দলিল লিখকদের সনদপত্র বাতিলের হুমকি প্রদান, লেখকদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রত্যাহারের দাবিতে কর্মবিরতি শুরু করেছে সেনবাগ দলিল লিখক সমিতি। রোববার সকাল সাড়ে ১১টায় সেনবাগে সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের সংলগ্ন সমিতির অস্থায়ী কার্যলয়ে সেনবাগ দলিল লিখক সভাপতি এম তালেবুজ্জামানের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত হয়। সভায় লেখকদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রত্যাহার, অফিসের অনিয়ম বন্ধ করা, দাবী না মানা পর্যন্ত কর্মবিরতি চালিয়ে নেয়া ঘোষনা দিয়ে দেয়া হয়। এসময় সমিতির সাধারণ সম্পাদক আইনুল হক বাহাদুর, সাবেক সভাপতি নোয়াব মিয়া ও ইউসুপ মজুমদার, সদস্য মো. আলী হোসেন রতন ও কাজী হুমায়ন সহ ভুক্তভোগী সমিতির সদস্য বৃন্দ বক্তব্য রাখেন।
এর আগে গত বৃহস্পতিবার সাব-রেজিস্ট্রারের অসৌজন্যমূলক আচরণ ও নানা অনিয়মের ঘটনায় দলিল লিখক সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটি জরুরি মিটিং করে প্রতিবাদ জানান।
প্রসঙ্গত চলতি বছরের মার্চ মাসে জেলার কবিরহাট উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার তানিয়া তাহের অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে সেনবাগে সপ্তাহে দু’দিন অফিস করেন। তিনি অফিস কার্যক্রম শুরুর পর থেকে শুরু হয় দলিল সম্পাদনে অসদাচরণ, ঘুষ দাবি, দলিল লিখকরা এর প্রতিবাদ করলে সনদপত্র বাতিলের হুমকি প্রদান করে। সাব-রেজিস্ট্রারের এই সব অভিযোগের বিরুদ্ধে ঘটনার প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগী দলিল লিখক মো. আলী হোসেন ও কাজী হুমায়ন ১৬ই জুন মহাপরিদর্শক (নিবন্ধন), আইনমন্ত্রী, সচিব,সহ সংশ্চিষ্ঠ্র দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এ বিষয়ে সাব-রেজিস্ট্রার তানিয়া তাহেরের সাথে মুঠো ফোনে কথা বলার চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেনি। জেলা রেজিস্টার আবদুল খালেক জানান, সাব-রেজিস্ট্রার তানিয়া তাহের বিরুদ্ধে অভিযোগ এখনো তিনি পায় নি। কর্মবিরতের বিষয়ে তিনি বলেন এটা তারা করতে পারেন। আমার অফিস যথা নিয়মে চলবে।