রায়পুরে দিনমজুর দম্পতিকে পিটিয়ে জাতীয় পার্টির সভাপতি ও পৌর কাউন্সিলর শ্রী ঘরে

29

নিজস্ব প্রতিনিধি:
লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে দিনমজুর মো. ইউসুফ ও তার স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত করার ঘটনায় এক সহযোগীসহ রায়পুর পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আনোয়ার হোসেন বাহার’কে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।
আজ বুধবার দুপুরে লক্ষ্মীপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করলে তাদের জামিন নামঞ্জুর করেন বিচারক তারেক আজিজ।এ ঘটনায় কারাগারে প্রেরন করা অপর আসামী হলেন— দেনায়েতপুর এলাকার খোকন মিয়ার ছেলে আরিফ হোসেন।বাদীপক্ষের আইনজীবী আনোয়ার হোসেন মৃধা দেশ’কে জানান, আদালতের বিচারক পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিলেন। আগামী ৩০ নভেম্বর তাদের আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছিল। এ ছাড়া মামলার ছয় নম্বর আসামি মো. দুলালকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত।এজাহার সূত্রে জানা যায়, ইউসুফের সঙ্গে অভিযুক্তদের জমিসংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। এরই জের ধরে রোববার বিকালে অভিযুক্ত আরিফ, রাজিব, মানিক ও লতিফ তাকে পিটিয়ে আহত করে। এ সময় ইউসুফকে বাঁচাতে গেলে তার স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগমকেও পেটানো হয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সরকারি হাসপাতালে পাঠান। পথে মামলার দ্বিতীয় আসামি কাউন্সিলর বাহার তাদের গতিরোধ করেন। অশ্রাভ্য ভাষায় গালমন্দ করার অভিযোগ এনে বাহার তাকে এলোপাতাড়ি কিলঘুষি মারেন। এতে ইউসুফের ডান চোখে জখম হয়। এ ঘটনায় ইউসুফ বাদী হয়ে আদালতে ছয়জনের নামে মামলা দায়ের করেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জাতিয় পার্টির এক নেতা বলেন কাউন্সিলর বাহার নিজ দলের কেন্দ্রীয় সির্দ্দান্ত ও তিনি মানেননা। সব সময় অহংকারী মনোভাব নিয়ে চলেন। একাদিক সূত্র থেকে জানা যায় তিনি ইতো পূর্বে বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকান্ডে জনতার হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •