রায়পুরে’ তাহযীবুল উম্মাহ ক্যাডেট মাদ্রাসায় ছাত্রকে যৌন নিপীড়ন

নুরুল আমিন ভূঁইয়া নিজস্ব প্রতিবেদক:
এক সময়ের কওমে লুত থেকে এরা বেশী জঘন্য। কারন- কওমে লুতরা শিশুদের বলাৎকার করতোনা। শিশুরা ফেরেশতা সমতুল্য। কওমে লুতের অল্পসংখ্যক লোকের এই ঘৃন্য কর্মে পুরো জাতিকেই আল্লাহ ধ্বংশ করেছে। লক্ষীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার নতুন বাজার তাহযীবুল উম্মাহ ক্যাডেট মাদ্রাসায় ছাত্রকে যৌন নিপীড়নকারী শিক্ষক রামগঞ্জ নিবাসী হাফেজ মাওঃ শাহাদাৎ আব্দুল্লাহ, +২৩) । ১৩ বছরের একজন ক্যাডেট মাদ্রাসার আবাসিক ছাত্রের সাথে সে এই জঘন্য অপকর্ম করেছে। ঐ শিক্ষক বিরুদ্ধে নির্যাতিত মাদ্রাসা ছাত্রের মা রায়পুর থানায় তাকে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দিয়ে আজ থানা পুলিশ তাদের জেলহাজতে প্রেরন করেন। এই মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে পূর্বে এই মাদ্রাসায় এমন একাধিক ছাত্রের অভিযোগ রয়েছে, যানা ছাত্ররা হজুরের ভয়ে কোন অভিযোগ করতোনা। তাঁর বিরুদ্ধে অসংখ্য ভিযোগ রয়েছে। এদের নূরাণী চেহারার আড়ালে এই ঘৃন্য পশুর চরিত্র- ভাবতেই কষ্ট লাগে। প্রায় আবাসিক মাদ্রাসায় এ ধরনের গঠনা ঘটছে হর-হামেশা। তাই মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রের পিতা-মাতারা চিন্তিত এখন তাদের মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রদের নিয়ে ভাবছেন ।
কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য এর একটা বিহীত অতীব জরুরী বলে মনে করেন অভিজ্ঞ মহল। স্হানীয় জনগনের দাবী যে সম্হ মাদ্রাসায় কিশোর ছাত্রদের এসব যৌন হয়রানি করা হয়, সেই সব মাদ্রাসা অচিরেই বন্ধ করার জন্য রায়পুর উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন ও সুষ্ঠু বিচার দাবী করেন সাধারন জনগন