নাইক্ষ্যংছড়িতে গৃহহীন ২৫ পরিবারের মাঝে ঘরের চাবি হস্তান্তর

মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা:
সারা দেশের ন্যায় বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলাতেও ‘প্রধানমন্ত্রীর উপহার আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ভূমিহীন ও গৃহহীন ২৫ পরিবারের মাঝে ঘরের চাবি ও সনদ হস্তান্তর করা হয়েছে।

রবিবার (২০জুন) সকাল সাড়ে ১০টায় নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা হলরুমে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নবনির্মিত দ্বিতীয় দাপের এসব ঘরের শুভ উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর পর এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সনদ ও চাবি হস্তান্তর করেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা প্রশাসন।

হস্তান্তর অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন কচি। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক মো: শফিউল্লাহ,অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, থানা’র অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা আক্তার, ভাইস চেয়ারম্যান মংওয়ালাই মার্মা,পাবর্ত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রীর প্রতিনিধি খায়রুল বাশার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রাজা মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: ইমরান, সদর ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আবছার ইমন, সোনাইছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান এ্যানিং মার্মা, ঘুমধুম ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ, দৌছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হাবিবুল্লাহ। নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার একাডেমিক সুপার ভাইজার মো: সোহেল মিয়া’র পরিচলনায় উপস্থিত ছিলেন নাইক্ষ্যংছড়ি প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বর্তমান আহবায়ক কমিটির সদস্য মাঈনুদ্দীন খালেদ, প্রেসক্লাবের আহবায়ক আব্দুল হামিদ, সদস্য সচিব জাহাঙ্গীর আলম কাজল, সদস্য জয়নাল আবেদীন টুক্কু, সদস্য আব্দুর রশিদ, সদস্য মো: ইউনুছ, মো: তৈয়ব উল্লাহ প্রমূখ। উল্লেখ্য সারাদেশে মজুিবববর্ষ উপলক্ষে ২য় পরর্যায়ে ৫৩ হাজার ৩৪০ টি ঘরের উদ্বোধন করেন। নাইক্ষ্যংছড়িতে প্রথম দাপে ২৫ টি ও দ্বিতীয় দাপে ২৫ টি সহ ১৮৯ টি ঘর দেওয়া হবে গৃহহীনদের।নাইক্ষ্যংছড়িতে নতুন ঘরের চাবি ও সনদ পেয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন, নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নের চেরারকুল এলাকার শাহ জালাল তার স্ত্রী সেলিনা আক্তার এবং সোনাইছড়ি বৈদ্যপাড়া এলাকার উথোয়াইছা মার্মা। এসময় তারা আরও জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ জরাজীর্ণ ঘরে বসবাস করেছেন, বর্ষাকালে কষ্ট করেছেন। এখন বর্ষাকালে ভালোভাবে দিনাতিপাত করতে পারবেন। অনুষ্ঠানে ২৫ জন গৃহহীন পরিবারের মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব ঘরের চাবি ও সনদ হস্তান্তর করা হয়।