দাউদকান্দিতে সুবিধাবঞ্চিতদের ফুটবল টুর্নামেন্টে’র ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

আজিনুর রহমান, দাউদকান্দি (কুমিল্লা):
কুমিল্লার দাউদকান্দিতে সুশীল সমাজ সংগঠনের উদ্যোগে সুবিধাবঞ্চিতদের ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় দাউদকান্দির রজনীগন্ধা একাদশ ০-১ গোলে তিতাস শাপলাফুল একাদশকে হারিয়ে জয়লাভ করে।উপজেলার গৌরীপুর আজিজিয়া স্টেডিয়ামে (গৌরীপুর হাই স্কুল মাঠ) আজ ১৯ জুন শনিবার অনুষ্ঠিত খেলায় প্রধান অতিথি ছিলেন, ১৭ নং গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আবুল হাশেম সরকার।

টুর্নামেন্ট কমিটির আহ্বায়ক ও সুশীল সমাজ সংগঠনের উপদেষ্টা কবি মো. আলী আশরাফ খানের সভাপতিত্বে খেলায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, জিংলাতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আলমগীর হোসেন মোল্লা, তিতাস উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গাজী মোঃ মাজহারুল ইসলাম, গৌরীপুর বাজার উন্নয়ন ও রক্ষণাবেক্ষণ কমিটির সাধারণ মোঃ নোমান সরকার, মুক্তি মেডিকেল সেন্টারের স্বত্বাধিকারী ডাঃ মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক, গৌরীপুর স্পোটিং ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আনিসুর রহমান হেলেন, সাবেক কৃতি ফুটবলার ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রোটারিয়ান প্রহল্লাদ কর্মকার, গৌরীপুর রেসিডেনসিয়াল মডেল স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ শাহ আলম সরকার, গৌরীপুর নিউ মেডিনোভা হসপিটাল-এর পরিচালনা পর্ষদের সদস্য মোঃ ইব্রাহীম সরকার রাসেল, সাংবাদিক মোঃ আব্দুর রহমান ঢালী, সূচনা ডট টিভি’র খবর পাঠক ও সাংবাদিক মোঃ আবু তাহের নয়ন, ‘সৃষ্টি’র সাধারণ সম্পাদক ও মানবাধিকার কর্মী মোঃ এখলাছুর রহমান মুন্সি, তরুণ ছড়াকার মোঃ দ্বীন ইসলাম রাজু, গৌরীপুর বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ মহিউদ্দিন আহমেদ। সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন, সুশীল সমাজ সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মোঃ রুহুল সরকার, ধর্ম বিষয় সম্পাদক মোঃ তৈয়ব আলী জয়, জনকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ মাহবুবুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ বায়েজিদ মাতুব্বর, সাংগঠনিক সম্পাদক নাহিদ সরকার, সহ-সম্পাদক কাইয়ুম খান, সহ-সম্পাদক মাহমুদ শাহেদ, মোহাম্মদ কাইয়ুম সরকার, মোহাম্মদ আসলাম সরকার প্রমুখ।

খেলা পরিচালনা করেন, মোঃ জামাল হোসেন। ধারাবর্ণনায় ছিলেন, বিশিষ্ট ছড়াকার ও হস্তাক্ষরবিদ মোঃ মনির হোসেন মাস্টার। মিডিয়া পার্টনার ছিলেন, গৌরীপুর নিউ মেডিনোভা হসপিটাল, গ্রীণ লীফ চায়নিজ রেস্টুরেন্ট, গৌরীপুর গ্রীণ লাইফ হসপিটাল, সূচনা কমিউনিটি ডট টিভি।

চ্যাম্পিয়ান দলের ২ নং জার্সি পরিহিত রিফাতকে বিচারকমন্ডলীগণ ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত করেন। ম্যান অব দ্যা সিরিজ নির্বাচিত হন মোঃ নিহাদ।

চ্যাম্পিয়ান দলের প্রত্যেককে ১টি করে বল, ১ টি ক্রিকেট ব্যাট, মেডেল ও জার্সি উপহার দেওয়ার পাশাপাশি রানার্সআপ দলের প্রত্যেককে ১টি বল, মেডেল ও জার্সি এবং ৩ ও ৪র্থ স্থান অর্জনকারীদের ৩ টি যথাক্রমে ২ টি করে মানসম্মত বল উপহার দেওয়া হয়।

খেলায় প্রধান অতিথি বলেন, সুবিধাবঞ্চিতদের নিয়ে অত্র এলাকায় এই খেলাটিই প্রথম। আমি এই টুর্নামেন্টের আয়োজকদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।
তিনি আরও বলেন,এধরনের যে কোন খেলায় আমি পৃষ্ঠপোষকতা দান করতে আগ্রহী। আমি চাই, মাদক নামের আগ্রাসন হতে বাঁচতে কিশোর-তরুণরা খেলাধুলা অংশ নিক এবং তাদের জীবনে সামগ্রীক সমৃদ্ধি লাভ করুক।

খেলার সভাপতি বলেন, সুশীল সমাজ সংগঠনের এমন উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়। সুযোগ পেলে আমরা আবারও সুবিধাবঞ্চিতদের নিয়ে এরকম খেলার আয়োজন করবো-ইনশাআল্লাহ। তিনি আরও বলেন, এই টুর্নামেন্টে যেসব ক্ষুদে খেলোয়াড়রা অংশ নিয়েছে, তাদের মধ্যে এমন কিছু খেলোয়াড় রয়েছে, যারা প্রশিক্ষণ পেলে জাতীয় পর্যায়ে খেলে আমাদের কুমিল্লার মুখ উজ্জ্বল করতে পারবে বলে আমি মনে করি।