নবীনগরে আ’লীগ নেতার হামলায় বিআরডিবি’র কর্মচারী গুরুতর আহত

0

মো. সফর মিয়া,নবীনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি;
নবীনগর পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক(২) মোঃ কাউছার আলম শিবু ও তার সাঙ্গ-পাঙ্গদের হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন নবীনগর পল্লী উন্নয়ন বোর্ড(বিআরডিবি) এর কর্মচারী নবীনগর পশ্চিম পাড়ার মৃত তাহের মিয়ার ছেলে সোহেল মিয়া(২৬)।মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত গুরুতর আহত সোহেলকে নবীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লে·ে ভর্তি করা হলেও উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।
তথ্য সূত্রে জানা যায়, উভয়ের মধ্যে একাধিক বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। সম্প্রতি স্থানীয় কাউন্সিলর আবু তাহেরের অফিসে গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে দুজনের মধ্যকার সকল তুচ্ছ ঘটনার সমাধান করা হয়।

এছাড়াও বিআরডিবি অফিসের একটি সরকারি গাছ কেটে বিক্রি করার অভিযোগে বিগত দুই বছর পূর্বে কাউছার আলম শিবুর ৫ হাজার টাকা জরিমানা কে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে ঝামেলা হয়েছিল।এসকল ঘটনার জেরে পূর্ব শত্রুতার আক্রোশে শনিবার (২১/০৮) সকালে পৌর এলাকার পশ্চিম পাড়া বউ বাজারের রহিছ মিয়ার চায়ের স্টলে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে কাউছার আলম শিবু তার সাঙ্গ-পাঙ্গ নিয়ে সোহেলের উপর অতর্কিত হামলা করেন।এতে সে গুরুতর আহত হয়। আহত অবস্থায় তাকে চিকিৎসার জন্য নবীনগর সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লে· নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে তার প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা সদরে রেফার করা হয়।বর্তমানে সেখানে সে মুমূর্ষু অবস্থায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।এবিষয়ে গুরুতর আহত সোহেল জানান, কাউছার আলম শিবু বিগত দুই বছর পূর্বে বিআরডিবি অফিসের সরকারি গাছ কেটে বিক্রি করার সময় আমি তা আমার মুঠোফোনে ভিডিও ধারণ করায় সে আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে দীর্ঘদিন ধরে আমাকে মারধর করার পরিকল্পনা করে আসছে,এরই জেরে সকালে আমাকে একা পেয়ে সাঙ্গ-পাঙ্গ নিয়ে হামলা করে গুরুতর আহত করেছে। আমি এর সুষ্ঠু বিচারের জন্য চিকিৎসা শেষে আইনের আশ্রয় নিব।

হামলার বিষয়ে হামলাকারী মোঃ কাউছার আলম শিবু কে মুঠোফোনে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান,আমার সাথে তার প্রায়ই বিভিন্ন ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাক-বিতন্ডা লেগে আছে,সে বিগত কিছুদিন পূর্বে আমার সাথে খারাপ ব্যবহার করেছে। আজ সকালে তার সাথে আমার কথা কাটাকাটি ও সাধারণ হাতাহাতি হয়েছে।

উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে কি কোন অভিযোগ নবীনগর থানায় দায়ের হয়েছে জানতে নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুর রশিদ কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান, এই বিষয়ে নবীনগর থানায় কোন অভিযোগ পাইনি,অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •