পানছড়িতে নিরিহ প্রাণীকে মর্মান্তিক ভাবে হত্যা

44

পারভেছ মোসারফ ভুঁইয়া (পানছড়ি প্রতিনিধি): 

 খাগড়াছড়ির পানছড়িতে ইসলামলুর এলাকার( আরমি ক্যাম্প সংলগ্ন)  মোহাম্মদপুর এলাকার তরুণ উদ্দোক্তা সাংবাদিক রায়হান আহম্মেদের খামার বাড়িতে রাতের আঁধারে খামার ঘরের তালা ভেঙ্গে দুইটি নিরিহ ( ছাগল) প্রাণীকে  দড়ি দিয়ে গলা পেঁচিয়ে নিঃসংশ ভাবে হত্যা করা হয়েছে । 

সোমবার  (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল  ৮ টার সময়  

তার নিজ খামার বাড়িতে সকল প্রাণীদের খাদ্য দিতে গেলে ছাগলের ঘরটি  তালা ভাঙ্গা অবস্থায় পাওয়া যায়।

জানা যায়,তালা ভাঙ্গা অবস্থায় খামার ঘরে ছাগল দেখতে না পেয়ে  অনেক খোঁজাখুঁজি করলে খামারের পাশের জঙ্গলে দঁড়ি দিয়ে মুখ বাঁধায় অবস্থায় মৃত দুইটি ছাগল পাওয়া যায় । ৮টি ছাগলের মধ্যে ২ মৃত অবস্থায় এবং  বাগানে তাৎক্ষণিক ২ পাওয়া যায় কিন্তু  ছাড়া আরও চারটি ছাগল পাওয়া না গেলে খামারের আশপাশ বিভিন্ন স্থানে খুঁজাখুঁজি শেষে বিকালে  মাঠে দুইটি ছাগল পাওয়া যায়।আরও দুইটি ছাগল খুঁজে পাওয়া যায় নি।

এই নিয়ে সাংবাদিক রায়হান জানান,পুর্ব শত্রুতার জের ধরে এমন নিঃসংশ ঘটনা হয়েছে।আমার মোট ৮ টি ছাগল ছিল।আজ সকালে এসে দেখি আমার খামারের তালা ভাঙ্গা। অনেক খুঁজাখুঁজি করে দুইটি ছাগল মৃত অবস্থায় পায় এবং পুকুরের পাড়ে ঘাস খাওয়া অবস্থায় আরো দুটি ছাগল দেখতে পাই আরো চারটি ছাগল নিখোঁজ ছিল  বিকালে মাঠে দুইটি পায়।আমার আরও দুইটি ছাগল বর্তমানে নিখোঁজ রয়েছে ।আমি প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি সঠিক তদন্ত করে অপরাধীদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা করার।

৪ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মতিউর রহমান বলেন,মানুষের সাথে মানুষের শত্রুতা থাকতে পারে।কিন্তু একটি  বোবা প্রাণী কি দোষ করলো।একটা নিরীহ প্রাণীর উপর এমন নির্দয় কাজ ঘৃণ্য মন-মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ।এর সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা উচিত। 

পানছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ আনচারুল করিম জানান, সাংবাদিক রায়হান মুঠোফোনের মাধ্যমে আমাকে ঘটনার বিস্তারিত জানিয়েছে,  তিনি লিখিত আবেদন করলে আমি আইনানুগ ব্যবস্থা নেব।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •