কক্সবাজারে ৬ টি স্বর্ণের বারসহ পাচারকারী চক্রের সদস্য আটক

0

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বিজিবি’র রামু ব্যাটালিয়ন (৩০ বিজিবি) কর্তৃক মরিচ্যা যৌথ চেকপোস্টে আসামীসহ ৯৯৬.৩২ গ্রাম ওজনের ৬ টি স্বর্ণের বার আটক করে।

করোনা ভাইরাস এর মহামারির মধ্যেও বিজিবি তাদের নিজ কর্তব্যে অটুট থেকে দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় বিশেষ মাদক বিরোধী অভিযানসহ সীমান্ত দিয়ে চোরাকারবারীরা যাতে বাংলাদেশ সরকারকে কর/ভ্যাট ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে মালামাল পাচার করতে না পারে সে লক্ষ্যে বিজিবি প্রতিনিয়ত বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে। এরই ধারাবাহিকতায় রামু ব্যাটালিয়ন (৩০ বিজিবি) এর মরিচ্যা যৌথ চেকপোস্ট কর্তৃক নিজস্ব গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারেন যে, আন্তজার্তিক চোরাচালানী চক্রের একজন সদস্য বিপুল পরিমান স্বর্ণালংকার নিয়ে অবৈধভাবে মায়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। রবিবার ( ১ আগস্ট) বিকালে মরিচ্যা যৌথ চেকপোষ্ট অতিক্রম করতে পারে। এতদপ্রেক্ষিতে মরিচ্যা যৌথ চেকপোস্টে তল্লাশী কার্যক্রম জোরদার করা হয়। দুপুরে একটি সিএনজি তল্লাশীকালে যাত্রীর আচরণ সন্দেজনক হওয়ার তাকে সিএনজি থেকে তল্লাশীর জন্য নামানো হয়। পরবর্তীতে অধিনায়কের উপস্থিতিতে সিএনজির যাত্রী মোঃ আবছার উদ্দিন (১৯) নামের একজন কে আটক করে। এসময় তার কাছ থেকে ৬ টি স্বর্ণের বারসহ ১ টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় সে উক্ত স্বর্ণের বারগুলো ০১ আগস্ট সকালে বালুখালী সীমান্ত তল্লাশী করা হলে তার কোমরে প্যান্টের ভিতর পার্শ্বে অভিনব কৌশলে লুকায়িত অবস্থায় আনুমানিক ৬০,০০,০০০/- (ষাট লক্ষ) টাকা মুল্যমানের ৯৯৬.৩২ গ্রাম ওজনের ছয়টি স্বর্ণের বার এবং ১০,০০০/- টাকা মূল্যের ৩৬ লক্ষ টাকার বিনিময়ে মায়ানমার থেকে ক্রয় করে দুপুরের সময় বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে। উক্ত বারগুলো সে ঢাকা-সিলেট হয়ে ভারতে পাচার করবে। ভারতীয় স্বর্ণ পাচারকারীরা তাকে এর বিনিময়ে ৩ লক্ষ টাকা প্রদান করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

উল্লেখ্য, কর/ভ্যাট ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে সীমান্ত দিয়ে বর্ণিত স্বর্ণ চোরাচালানী কাজে জড়িত থাকায় উক্ত চোরাকারবারীকে আটক করতঃ রামু থানায় সোপর্দ করা হয়েছে এবং তার নিকট হতে উদ্ধারকৃত স্বর্ণালংকার কক্সবাজার ট্রেজারী অফিসে জমা করার

কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •