ইউপিডিএফ সাবেক কর্মীকে গুলি করে হত্যা: পাহাড়ে দীর্ঘ হচ্ছে লাশের মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক,খাগড়াছড়ি:: পাহাড়ে একের পর এক ঝরছে তাঁজাপ্রাণ। রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের কারণে জীবন দিতে হচ্ছে আঞ্চলিক সংগনের সাথে যুক্তদের। ফলে পাহাড়ে দীর্ঘ হচ্ছে লাশের মিছিল। বাড়ছে পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠনগুলোর মধ্যে প্রতিহিংসা।

খাগড়াছড়ির পানছড়ি উপজেলাধীন মরাটিলা এলাকায় খল কুমার ত্রিপুরা ওরফে সাগর (২৮) নামের ইউপিডিএফের প্রসীত পন্থী (মুল) গ্রুপের সাবেক এক কর্মীকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার (১৮ জুলাই ২১) সকাল ৯টার দিকে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত সাগর মরাটিলা গ্রামের অলি মোহন ত্রিপুরার ছেলে।

জানা যায়, খল কুমার ত্রিপুরা (সাগর) পানছড়ি বাজারে যেতে বাড়ী থেকে বের হয়। মরাটিলা দোকানের পাশের রাস্তার গাড়ীর জন্য অপেক্ষমান অবস্থায় রবিবার সকাল ৯টার দিকে অস্ত্রধারীরা তাকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ী গুলি করে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

পানছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. দুলাল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরবর্তী আইনি প্রদক্ষেপ গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ইউপিডিএফ এর পক্ষ থেকে খল কুমার ত্রিপুরা ওরফে সাগরকে ইউপিডিএফ তাদের সাবেক কর্মী বলে দাবী করেন। সংগঠনটি এক বিবৃতিতে আরো জানান, বিগত এক বছর আগে নিহত খল কুমার ত্রিপুরা (সাগর) দলীয় কাজ থেকে ইস্তফা দিয়ে পারিবারিক কাজে নিজেকে নিয়োজিত করে সাধারণ জীবন-যাপন করে আসছে।

এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে অবিলম্বে সাগরের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবী জানান ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের সংগঠক অনি চাকমা। ইউপিডিএফ (প্রসীত পন্থী) গ্রুপের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের নিরন চাকমা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।