গলাচিপার উলানিয়ার ব্রিজ এখন মরণ ফাঁদ

9

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :
পটুয়াখালীর গলাচিপার উলানিয়া ব্রিজের এপ্রোস সড়ক ভেঙে যাওয়া মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে। বর্ষায় ব্রিজের পশ্চিম পাশের এপ্রোস সড়ক ভেঙে যাওয়ায় ব্রিজ পারাপারে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এলাকার শিশু শিক্ষার্থী স্থানীয় লোকজনদের। গলাচিপা-দশমিনা ব্রিজের সড়কটি একটি জনগুরুত্বপূর্ণ সড়ক। এই সড়কে
প্রতিদিন উপজেলার অসংখ্য হালকা, মাঝারি ও ভারী যানবাহন চলাচল করে। এ ছাড়াও প্রতিদিন উলানিয়া নদীর ব্রিজর উপর দিয়ে যাতায়াত করে তিন উপজেলার হাজার হাজার মানুষ। ব্রিজের পশ্চিম পাশে উলানিয়া বড় বাজার এবং উলানিয়া কলেজ,
মাদ্রাসা, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একটি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলো ব্রিজের পশ্চিম পারে হওয়ায় কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা প্রতিদিনই পোহাচ্ছে চরম দুর্ভোগ ও ব্রিজে উঠতে গিয়েও দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন অনেকেই। অভিবাবকরা তাদের ছেলে-মেয়েকে স্কুলে পাঠিয়ে দুশ্চিন্তার মধ্যে দিন কাটায়। স্থানীয় বাসিন্দা হাবিবুর রহমান, অটোচালক হাফিজুর রহমান, দ্বীন ইসলাম,
সোহাগ ও রুবেল খান সহ আরো অনেকে জানায়, ব্রিজটির এপ্রোস সড়ক ভেঙে যাওয়ায় আমাদের যাতায়াতে অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। তাই বিষয়টির প্রতি প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি দেওয়া প্রয়োজন। বিষয়টি তদারকির দায়িত্ব যাদের হাতে তারা বিষয়টি দেখেও না দেখার ভান করছেন। যার ফলে ঐ স্থানে ভারী যানবাহন ডেবে গিয়ে মারাত্মক দুর্ঘটনার আশংকা দেখা দিয়েছে।উপজেলা প্রকৌশলী মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ব্রিজটির উপর থেকে নিচে পানি গড়িযে নামার কারনে এক পাশের মাটি সরে গিয়েছে । যার ফলে মানুষের চলাচলে সমস্যা হচ্ছে। ব্রিজের এপ্রোস দ্রুত ঠিক করে দেওয়া হবে। রতনদী তালতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম মোস্তফা জানান,
ব্রিজটি এখন ঝুকিপূর্ণ খুব দ্রুত এপ্রোস মেরামত করা দরকার।