আমতলীর চাওড়া ইউনিয়নের ৬০২ জেলে পরিবারের মাঝে চাল বিতরণ

আমতলী(বরগুনা) প্রতিনিধি: দেশের সামুদ্রিক জলসীমায় মাছের প্রজনন, উৎপাদন, সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণ এবং টেকসই মৎস্য আহরণের জন্য সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী ৬৫ দিন মৎস্য আহরণে নিষিদ্ধ সময়ে ইলিশ প্রজনন সময়ে মাছ ধরা থেকে বিরত প্রত্যেক জেলেকে করোনা পরিস্থিতির দুঃসময়ে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিশেষ বরাদ্দের আওতায় আমতলী উপজেলার চাওড়া ইউনিয়নের ৬০২টি জেলে পরিবারের মাঝে ৩ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে।
সোমবার (১৯ জুলাই) সকাল ১০ টায় বৈঠাকাটা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে চাল বিতরন কার্যক্রম উদ্বোধন করেন চাওড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মো. আখতারুজ্জামান খান বাদল। চাউল বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মৎস্য অফিসের ক্ষেত্রসহকারী জগদিস চন্দ্র বসু। চাওড়া ইউনিয়ন সচিব ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত নারী সদস্যসহ ৯টি ওয়ার্ডের সদস্যবৃন্দ,স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

চাওড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মো. আখতারুজ্জামান খান বাদল বলেন, বর্তমান সরকার সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণ এবং টেকসই মৎস্য আহরণের লক্ষ্যে সরকার টানা ৬৫ দিন দেশের বিভিন্ন নদ-নদীতে মাছ না ধরার জন্য নির্দেশনা ঘোষণা করে। নিষিদ্ধ এই সময়ে বিরত থাকা প্রত্যেক জেলেকে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের আওতায় প্রতিটি জেলে পরিবারকে ৩০ কেজি করে চাল দেওয়া হয়। ইউনিয়নে তালিকাভুক্ত ৬০২টি জেলে পরিবারের মাঝে আজ সরকারের দেয়া প্রণোদনা বিশেষ বরাদ্দের বিপরীতে জেলে পরিবারের দুঃখ লাগবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের পক্ষ থেকে এ চাল বিতরণ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।