ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সহিংসতার ঘটনায় র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ২৩

২৮ অক্টোবর বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে সহিংসতা ও পরবর্তী সময়ে বিভিন্নস্থানে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতির দায়ে ২৩ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

শনিবার (৪ নভেম্বর) দিনভর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন জানান, সম্প্রতি রাজনৈতিক কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে কতিপয় দুর্বৃত্ত ও স্বার্থান্বেষী মহল হামলা ও নাশকতার মাধ্যমে দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিরি অবনতি করে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

গত ২৮ অক্টোবর কাকরাইল, পল্টন, ফকিরাপুল ও মতিঝিলসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে হামলা চালানো হয়।

এছাড়া, গণপরিবহন, ব্যক্তিগত পরিবহন ও সরকারি বিভিন্ন যানবাহনে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে, প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা চালানো হয়।

পরে বিভিন্ন কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মহাসড়কে অগ্নিসংযোগ, গণপরিবহন ও ব্যক্তিগত পরিবহন ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগসহ বিভিন্ন নাশকতার ঘটনা ঘটায়।

র‌্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, শনিবার (৪ নভেম্বর) অভিযান চালিয়ে মহাসড়কে নাশকতা, সহিংসতা ঘটনায় রাজধানীর কালশী এলাকা থেকে মৎসজীবী দলের যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন, মিরপুর থেকে মৎসজীবী দলের যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল বারেক, মানিকগঞ্জ সদর থেকে ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা, বগুড়া সদর থেকে কোকো স্মৃতি সংসদ গাবতলী থানা শাখার সভাপতি মো. আলপনা কবির ওরফে বড় বাবু, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা থেকে উপজেলা জামায়াত ইসলামের সেক্রেটারি কাজী আনিসুর রহমান, খুলনার রূপসা থেকে জেলা যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক মো. সাগর মোল্লা, গাজীপুরের জয়দেবপুর থেকে গার্মেন্টস শ্রমিকদের চলমান আন্দোলনে সহিংসতা সৃষ্টির অপরাধে ৩ জনসহ অগ্নিসংযোগ ও নাশকতার মামলায় সর্বমোট ২৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ডিআই/এসকে

শেয়ার করুনঃ

স্বত্ব © ২০২৩ সকালের খবর ২৪