কবিতা “করোনা” লেখক মোঃশফিকুল ইসলাম

এ কেমন এলো মরণ ব্যাধি,
চারিদিকে স্বজন হারা আর্তনাদে
আকাশ বাতাস হচ্ছে ভারী
অতিমারি নহে এটা মহামারী।

কত সমাধীত পূড়ছে চিতায়
কত আশা বেঁচে থাকা, অকালে বিদায়
এ ধরা ফুল পাখিতে সাজবে কি আর
এ রুপের গুন কীর্তন গাইবে কে আজ।

এ ধরায় আজ লাশের মিছিল নিরব চোখে
এ বেদনা বড়োই ভারী বওয়া ভিষণ ব্যথে
এ চোখে কত বিদায় স্বজন গেতি প্রতিবেশী
নিরাশার ডুকরে কান্না আসছে ভেসে।

এ ব্যথা বিষম ভারী বহ’তে কি পারি
ব্যস্ত ধরা নিরব আজি হীনশব্দ কোলাহলে
বিশ্ব জনে ডাকছে ধরে কোরনা বলে
জপছে মুখে লক্ষ কোটি আহাজারি।

এ ব্যাধি ছাড়বে কবে এ ধরা ভূমি
প্রশ্ন সবার একই কেন জানি
আর কত ঝড়বে স্বপ্ন অকাল গ্রাসে
এসো সবে জবানে জপি তির্থ খোদা।

করোনা তুই জানা,মিছে আর ভুগাসনা
এ চোখে নিরব স্বাক্ষী –
আত্ম চিৎকার চোখের জলে।
কত কাফন চিতারোহণ দপদপিয়ে হল অতিত

কত ঘরে করলে প্রবেশ, কত মুছলি সীঁথির সিঁদুর
এ বড়ো দীর্ঘশ্বাসে আসে স্মরণে বেদনা বিধুর
তোর আগমনে কত ঘরের নিভেছে আলো
মনের কোণে ব্যথা জমা অনেক খানি
এবেলায় করিসনা আর শূন্য ভুমি
একটু দয়া থাকে যদি থামা তোর রাক্ষুসিনী।