কবিতা ” আত্মকেন্দ্রিক ” কবি :রেজা করিম

আহা, জীবন !
ভয় কিংবা সংশয়ের দোলাচলে
অনিশ্চিত সময়ের সারথি হয়ে
কী উদাস তাকিয়ে থাকি !
গৃহবাসী থেকে অলস দিনের ঘাড়ে শুয়ে
জানালার গরাদ ভেদ করে
একখণ্ড অখণ্ড চতুষ্কোণ আকাশ দেখি সারাদিন ।

আহা, জীবন !
অনিশ্চিত আর অস্থিরতার ভাবালুতায়
খুঁজে বেড়াই সদ্য অতীত –
আহা, কতদিন দেখিনা চিরচেনা
বলেশ্বরের গোধূলি আলোর বিচ্ছুরণ !
আহা, কতকাল পা পড়েনি
সবুজ ঘাসে আচ্ছাদিত গ্রামীণ আলপথে !
আহা, কত বিকেল শুনিনি
বন্ধু বেষ্টিত সরস আড্ডায়
হাস্যরসের সাথে চায়ের কাপের টুংটাং সিম্ফনি !

আহা, জীবন !
তবে কি ক্রমশ বিস্মৃতির আড়ালে
হারিয়ে যাচ্ছে প্রিয়জনের খুব চেনামুখ ?
তবে কি ক্রমশ দীর্ঘতর হচ্ছে
নিকট থেকে দূরত্বের সীমারেখা ?
তবে কি ক্রমশ সরে সরে যাচ্ছি
মানবিক সামাজিকতার ঘেরাটোপ থেকে বহুদূরে ?

আহা, জীবন !
কী অবলীলায় মৃত্যুর মিছিলে
দীর্ঘায়িত হয় নিঃসঙ্গ লাশের সারি !
প্রিয় স্বজনের উষ্ণ ছোঁয়া বঞ্চিত
নিথর দেহখানি পড়ে থাকে নিদারুণ অবহেলায় ,
শিয়রে ওঠেনা কান্নার রোল
বিরহী বিলাপে ভারী হতে পারে না
শোকাহত পরিজন বেষ্টিত পরিবেশ !
এ কেমন মৃত্যু ?
আত্মকেন্দ্রিকতার কী নির্মম ও নিষ্ঠুর প্রতিযোগিতা !

কী জানি কোন অদৃশ্য আহ্বানের প্রতীক্ষায়
সবাই যেন অপেক্ষমাণ –
কখন কার কোলাহল থেমে যাবে,
কখন পরবাসী হবো
সব কিছু পিছু ফেলে
পাথর চোখে তাকিয়ে থেকে
সফেদ কাফনে জড়িয়ে নেবো
নিস্পন্দ নিথর দেহখানি !!